কবিগুরুর ১৫৯তম জন্মবার্ষিকী আজ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ মে ২০২০, ০৯:৩৬

আজ পঁচিশে বৈশাখ। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৯তম জন্মবার্ষিকী। ১২৬৮ বঙ্গাব্দের এই দিনে তিনি কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন। মা সারদাসুন্দরী দেবী এবং বাবা বিখ্যাত জমিদার ও ব্রাহ্ম ধর্মগুরু দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর। কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবারে জন্মগ্রহণ করলেও কবির পূর্বপুরুষরা এ দেশের খুলনার অধিবাসী।

কবির জন্মদিন উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাঙালির মনন ও সৃজনে রবীন্দ্রনাথ এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। বিশ্বের বুকে বাঙালি ও বাংলা সাহিত্যকে মহিমার সঙ্গে তুলে ধরতেও রয়েছে কবিগুরুর ভূমিকা। আর তাঁর সাহিত্যকর্ম, সংগীত, জীবনদর্শন, মানবতা, ভাবনা- সবকিছুই সত্যিকারের বাঙালি হতে অনুপ্রাণিত করে। এ দেশের জাতীয় সংগীত রচনা করে বাঙালির চেতনা ও লাল-সবুজের পতাকায় নিজেকে উন্নীত করেছেন সম্মান ও ভালোবাসার আসনে। তিনিই বিশ্বের একমাত্র কবি যিনি বাংলাদেশ, ভারতসহ দুই দেশের জাতীয় সংগীতের রচয়িতা।

‘আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি’ জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে এ দেশের প্রকৃতি, মানুষ ও মানবিকতার কথা বাঙময় করে গেছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

কবির জাতীয় সংগীত শুধু জাতিসত্তার চেতনায় অনুরণন তোলে না মুক্তিযুদ্ধের সময় তাঁর গান ও কবিতা এ দেশের মুক্তিকামীদের শিহরিত, আন্দোলিত ও আলোড়িত করেছিল। রবীন্দ্রনাথ মিশে আছেন বাঙালির অস্তিত্বে, সৃজনে ও মননে। যার কারণে বাঙালির মানসপটে তাঁর জন্য রয়েছে অকৃত্রিম ভালোবাসা ও গভীর শ্রদ্ধা।

কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছিলেন একাধারে কবি, ছোটগল্পকার, ঔপন্যাসিক, নাট্যকার, গীতিকার, সুরকার ও চিত্রকর। রবীন্দ্রনাথের ৫২টি কাব্যগ্রন্থ, ৩৮টি নাটক, ১৩টি উপন্যাস ও ৩৬টি প্রবন্ধ ও অন্যান্য গদ্যসংকলন তাঁর জীবদ্দশায় ও মৃত্যুর পর প্রকাশিত হয়েছে। আর নিজের এসব সৃষ্টিকর্মে তিনি মানবতা ও অসাম্প্রদায়িকতার বিষয় তুলে ধরেছেন।

‘গীতাঞ্জলি’ কাব্যগ্রন্থের জন্য ১৯১৩ সালে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন রবীন্দ্রনাথ।

কর্মসূচি : বৈশ্বিক দুর্যোগ করোনা মহামারীর কারণে কবিগুরুর ১৫৯তম জন্মবার্ষিকীতে থাকছে না কোনো আয়োজন। তবে প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটালি উদ্যাপনের পরামর্শ অনুযায়ী সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ডিজিটালি প্রচারের জন্য একটি অনুষ্ঠান ধারণ করেছে। ধারণকৃত এ অনুষ্ঠানটি আজ সকাল ১০টায় দেশের বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার করা হবে। 

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ