জেলবন্দি ভারতীয় কবি ভারাভারা রাও করোনায় আক্রান্ত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০২০, ১২:৩৯

করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন জেলবন্দি ভারতীয় কবি-সমাজকর্মী ভারাভারা রাও। প্রায় দুইবছর ধরে মুম্বাইয়ের তালোজা জেলে বন্দি রয়েছেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যম দ্য ওয়াল জানায়, ৮০ বছর বয়সি ভারাভারার অসুস্থতার খবর মিলেছিল গত সপ্তাহেই। এর কয়েক দিন পর দক্ষিণ মুম্বাইয়ের সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। সেখানেই কভিড রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানায় চিকিৎসকরা।

২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে ভিমা-কোরেগাঁও এলাকায় এক দলিত সমাবেশকে কেন্দ্র করে ছড়ায় উত্তেজনা। উগ্রপন্থী একটি গোষ্ঠী ও দলিতদের সংঘর্ষে উত্তাল হয়ে উঠে মহারাষ্ট্রের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। এই ঘটনার পর ভারতের বিভিন্ন প্রান্তের নয়জন মানবাধিকার কর্মীকে গ্রেপ্তার করে মহারাষ্ট্র পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে এলগার পরিষদ মামলা রুজু হয়। চার্জশিটে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে হত্যার ষড়যন্ত্র করেছিলেন তারা। যদিও এ বিষয়ে কোনো সাক্ষ্যপ্রমাণ এখনো হাজির করতে পারেনি পুলিশ।

ওই বছর আগস্ট মাসে পুনের পুলিশ প্রথম গ্রেপ্তর করেছিল ভারাভারা রাওকে। তবে আদালতের নির্দেশে প্রমাণের অভাবে ছাড়া পান। নভেম্বরে ফের গ্রেপ্তার হন তিনি। প্রাথমিকভাবে পুনের ইরাভাদা কারাগারে বন্দি রাখার পরে মুম্বাইয়ে স্থানান্তর করা হয়।

এক মাস আগেই বিশেষ আদালতে খারিজ হয়ে যায় এ কবির জামিনের আবেদন। বম্বে হাইকোর্টে আবারও আবেদন করা হলেও তা এখনো এজলাসে ওঠেনি।

শেষ শুনানিতেই বৃদ্ধ কবির শারীরিক অবস্থার অবনতির কথা এবং করোনা সংক্রমণের আশঙ্কার কথা জানানো হয়েছিল আদালতে। কিন্তু সে সব আমলে নেননি বিচারক। পরিবারের দাবি— অসুস্থ ও বৃদ্ধ ভারাভারা রাওয়ের চিকিৎসাটুকুও করাচ্ছে না হাসপাতাল। অভিযোগ, তাকে জেলেই মেরে ফেলার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

শেষমেশ বারবার পরিবার ও আইনজীবীদের তরফে আবেদন জানানোর পরে মঙ্গলবার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জেজে হাসপাতালের ডিন ডক্টর রণজিৎ মানকেশ্বর সংবাদমাধ্যমকে জানান, বৃহস্পতিবারই রাওয়ের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে আসে। তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

গত এপ্রিল মাসে প্রায় চল্লিশ জন বিশিষ্ট লেখক করোনার প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়ে রাওয়ের মুক্তির অনুরোধ করেন।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ