দেবহাটায় দশম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:০৮

দেবহাটায় দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা প্রেরন করেছে এবং হত্যার রহস্য উদঘাটনে দেবহাটা থানা পুলিশ ও সাতক্ষীরা ডিবি পুলিশের দল অভিযানে নেমেছে বলে সূত্র নিশ্চিত করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসীর দেয়া তথ্য মতে জানা গেছে, দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের টিকেট গ্রামের শান্তিরঞ্জন দাসের কন্যা পূর্নিমা দাস (১৬) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আওতাবুক্ত গাভা হাইস্কুলের দশম শ্রেনীতে পড়ে।

গতকাল বৃহষ্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর, ২১) সন্ধা সাড়ে ৬ টার দিকে পূর্নিমা প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার নাম করে বাড়ি থেকে বের হয়। পরে রাত হয়ে গেলে সে বাড়িতে না আসলে তার পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা তাকে খুজতে বের হয়। কিন্তু সারারাত খুজেও তাকে পাওয়া যায়নি। পরে শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর, ২১ তারিখ সকাল ৬ টার দিকে স্থানীয়রা এক মহিলা পাশর্^বর্তী তারকের বাগান নামক স্থানে নিহত পূর্নিমার লাশ দেখতে পায়। নিহত পূর্নিমারা তিন বোন। পূর্নিমা তাদের মধ্যে মেজো।

পরে এলাকাবাসী দেবহাটা থানা পুলিশকে জানালে দেবহাটা থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত ওসি (তদন্ত) ফরিদ আহমেদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করেন। ওসি (তদন্ত) ফরিদ আহমেদ নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, মার্ডারের প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে। তবে এলাকাবাসী জানান, নিহত পূর্নিমাকে প্রেমের ফাদে ফেলে জোরপূর্বক ধর্ষন করে হত্যা করা হয়েছে। তারা দ্রুত এই নির্মম হত্যাকান্ডের প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করে দোষীদের বিচার দাবী করেছেন।


এবিএন/আর.কে.বাপ্পা/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ
ksrm