বগুড়ার ধুনটে পাওনা টাকা চাওয়ায় কুপিয়ে জখম

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৫ জুন ২০১৯, ২০:৫৬

বগুড়ার ধুনটে পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ায় আব্দুল লতিফ (২৮) নামে এক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ। এঘটনায় আজ মঙ্গলবার সকালে ওই ছাত্রলীগ নেতা বাদী হয়ে ধুনট পৌর এলাকার চরধুনট গ্রামের মৃত ভুলু মিয়ার ছেলে রানা আহম্মেদ (২৬) সহ তিন জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় পুলিশ চরধুনট গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে শামীম হোসেন (৩২) নামে এক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে।

মামলা ও স্থানীয়সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার মাঠপাড়া গ্রামের মেহের আলীর ছেলে ও ধুনট সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ মন্ডলকে নতুন জুতা দেয়ার কথা বলে ধুনট মার্কেটের দুলাল সুজের কর্মচারী চরধুনট গ্রামের ভুলু মিয়ার ছেলে রানা আহম্মেদ তার কাছ থেকে ১৫০০ টাকা অগ্রিম নেয়। কিন্তু রানা আহম্মেদ দীর্ঘ দিনেও জুতা না দেয়ায় আব্দুল লতিফ তার কাছ থেকে পাওনা টাকা ফেরত চায়।

গতকাল সোমবার বিকেল ৫টায় টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বলে রানা আহম্মেদ মোবাইলফোনে আব্দুল লতিফকে ধুনট পৌর শহরের জিরো পয়েন্ট এলাকায় ডেকে নেয়। এরপর রানা ও তার লোকজন প্রকাশ্য দিবালোকে রাম দা দিয়ে ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল লতিফকে কোপাতে থাকে। একপর্যায়ে আব্দুল লতিফ মাটিতে পড়ে গেলে রানা ও তার লোকজন ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পরে স্থানীয় লোকজন ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মী তাকে উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল লতিফ বলেন, রানা আহম্মেদ নতুন জুতা দেয়ার কথা বলে আমার কাছ থেকে ১৫০০ টাকা নিয়েছে। কিন্তু দীর্ঘদিনেও সে জুতা না দেওয়ায় টাকা ফেরত চেয়েছি। কিন্তু সে টাকা ফেরত দেওয়ায় কথা বলে আমাকে ডেকে নিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে আমাকে কুপিয়ে জখম করে। এসময় তারা আমার পকেট থেকে সাড়ে ৭৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন জানান, প্রকাশ্য দিবালোকে একজনকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে এবং এজাহার নামীয় একজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।


এবিএন/ইমরান হোসেন ইমন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ