তারাগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ আগস্ট ২০১৯, ১৩:২৫

রংপুরের তারাগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের উত্তর রহিমাপুর জয়বাংলা গ্রামের মৃত ওমর আলীর মেয়ে শাহানাজ বেগম দীর্ঘদিন যাবত ঢাকার নারায়গঞ্জে গার্মেন্টস কর্মী হিসেবে কাজ করে আসছেন। তার মেয়ে স্বপনা আক্তার নানা বাড়ি জয়বাংলাতে থাকতেন। হঠাৎ শাহানাজকে ছোট ভাই আজহারুল ইসলাম রিয়েল গত ১৪ই মার্চ সন্ধ্যায় মুঠো ফোনে জানায় স্বপনা আত্মহত্যা করেছে। মেয়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে ঢাকা হতে মা শাহানাজ বাবা বাড়িতে ছুটে আসেন। পরে ওই দিন স্বপনার নানী আলেমা বেগম থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। 

এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত মামলা হয়েছে এবং ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছেন।

মামলার তদন্তকারি অফিসার এসআই আশীষ কুমার শীল বলেন স্বপনার হত্যার বিষয়টি স্বজনরা ফাঁসিতে ঝুলিয়ে ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করার চেষ্টা করেছিল। তবে গত মঙ্গলবার ওই ভিকটিম স্বপনাকে ধর্ষণের পর গলা টিপে হত্যার মেডিকেল রিপোর্ট পাওয়া গেছে। পরে ওই ঘটনায় সন্দেহ ভাজন তার মামা আজহারুল ইসলাম রিয়েলসহ খালা শাহিনাকে গ্রেফতার করেছেন পুলিশ।

ওসি জিন্নাত আলী বলেন মেডিকেল রিপোর্ট পাওয়ার পরে স্বপনার মা শাহানাজ বেগম বাদী হয়ে গতকাল বুধবার থানায় নারী ও শিশু দমন আইনে মামলা করেছেন। 

এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করে জেল-হাজতে পাঠিয়েছি এবং প্রকৃত ঘটনাসহ অপরাধীদের খুজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।

এবিএন/বিপ্লব হোসেন অপু/গালিব/জসিম 

এই বিভাগের আরো সংবাদ