সিরাজগঞ্জে দু’দিনব্যাপী নজরুল সম্মেলন অনুষ্ঠিত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:৪২

‘আমি চিরতরে দুরে চলে যাব, তবু আমারে দেব না ভুলিতে’ শ্লোগানকে ধারণ করে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে সিরাজগঞ্জ দ্বিতীয় বারের মত দু’দিনব্যাপী বাংলাদেশ-ভারত নজরুল সম্মেলন-২০১৯  গতকাল শনিবার থেকে শুরু হয়ে আজ রবিবার রাতে শেষ হয়েছে।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় শতাধিক বাংলাদেশ-ভারতের নজরুল সংগীত শিল্পী এবং দেড় সহ¯্রাধিক দর্শকের উপস্থিতিতে শহীদ এম মনসুর আলী অডিটোরিয়ামে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, বিশ্ব মানবতার কবি কাজী নজরুল অসাম্প্রদায়িক চেতনার উন্মেষ ঘটিয়েছেন।  হিন্দু-মুসলিমই শুধু নয়, কবি নজরুল লিখেছেন সকল ধর্মের সকল মানুষের জন্য।  নজরুলের গান ও কবিতা আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে সমগ্র বাঙ্গালী জাতিকে উদ্বুদ্ধ করেছেন। অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াবার সাহস জুগিয়েছে।

নজরুল একাডেমি সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক হেলাল আহমেদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার টুটুল চক্রবর্তী বিপিএম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন, নজরুল একাডেমি কেন্দ্রীয় সংসদরে সাধারণ সম্পাদক মিন্টু রহমান. সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও সিরাজগঞ্জ জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক এ্যড, হোসেন আলী হাসান, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এ্যড. বিমল কুমার দাস, আলহাজ্ব ইসহাক আলী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক আজিজুর রহমান রাঙ্গা। প্রধান আলোচক ছিলেন প্রফেরস করুনা রানী সাহা।

আলোচনায় অংশ নেন খ্যাতিমান রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী ড. জান্নাত আরা তালুকদার হেনরী এবং নজরুল একাডেমির সাধারন সম্পাদক মো: আইয়ুব আলী। অনুষ্ঠানের শুরুতে নজরুল একাডেমি সিরাজগঞ্জ জেলা শাখা প্রকাশিত ‘চেতনায় নজরুল’ এর মোড়ক উন্মোচন করেন অতিথিবৃন্দ।

দ্বিতীয় পর্বে সিরাজগঞ্জ নজরুল একাডেমির শতাধিক শিল্পীবৃন্দ কোরিওগ্রাফীর সঙ্গে পরপর ৪টি সমবেত সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এরপর ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলিকাতাার অগ্নিবীনা নজরুল চর্চা কেন্দ্রের ১১ সদস্যের প্রথিত যশা নজরুল সঙ্গীত শিল্পীরা সমবেত সঙ্গীতের মাধ্যমে সঙ্গীত পরিবেশনা শুরু করে।

এরপর দলপতি রাজর্শি রায়, সদস্য নিলাদ্রী রায়, মঞ্জুষা চক্রবর্তী, বনানী দে, ম্যাডোনা চট্টোপধ্যায়,  সায়ন্তী গাঙ্গুলী, রুমা সিনহা, বলাকা দাস, তৃষ্ণা রায়, অর্পিতা দত্ত এবং মনানী দাশ পরপর দুটি করে জনপ্রিয় নজরুল সঙ্গীত পরিবেশন করে দর্শকদের মুগ্ধ করেন। গানের ফাঁকে ফাঁকে সিরাজগঞ্জের নৃত্য শিল্পীরা নৃত্য পরিবেশন বরেন।

সাংস্কতিক অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন সাংস্কৃতিক সম্পাদক আজাদ রহমান, রিক্তা গুপ্তা, পাপড়ী খান, আমিনা খানম হাসি, নুরুল হুদা ও জুবায়ের জিকো। অনুষ্ঠ্না উপস্থাপনায় ছিলেন নরজরুল একাডেমির সহ সভাপতি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হাসনা হেনা। প্রায় ৩ ঘন্টা ব্যাপী নজরুল নঙ্গীত পরিবেশেনা  শেষে ভারতীয় শিল্পী ও অতিথিদের ক্রেষ্ট ও বিভিন্ন উপহার প্রদান করা হয় ।


এবিএন/এস.এম. তফিজ উদ্দিন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ