কয়রায় নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে মামলা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৯:০১

উপজেলার ৩নং কয়রা গ্রামের নুরি বেগম নামের এক নারীকে গভীর রাতে তার বসত ঘরের খুটির সাথে বেঁধে রেখে ষ্ট্যাম্প, নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও জমি জায়গার দলিল ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে উপজেলা বিজ্ঞ সিনিযর জুডিশিয়াল আদালতে মামলা করছেন ভুক্তভোগি ঐ নারী।

মামলার বিবরণে জানা যায় ২নং কয়রা গ্রামের আঃ রহমান সরদার তার স্ত্রী নুরজাহান খাতুন স্থানীয় ঝিলিয়াঘাটা বাজারে হারবাল ঔষধ ও কাপড়ের দোকান করা অবস্থায় নগদ অর্থের প্রয়োজনে গত ২৯/৪/১৮ ইং তারিখে ৩শ টাকার নন জুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্পে লিখিত পড়িত করে মামলার বাদী নুরি বেগমের কাছ থেকে নগদ ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা ধার নেন।

মামলার অন্য আাসমীরা হলো ২নং কয়রার সিরাজুল ইসলাম শেখ, ইমরান গাজী, মফিজুল গাজী ও নুর আলম সরদার। আসামী আঃ রহমান সরদার ও তার স্ত্রী নুরজাহান খাতুন যথা সময়ে বাদীনি নুরি বেগমের টাকা ফেরত না দিয়ে টালবাহানা করতে থাকলে  বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তিতি মামলা করেন। আদালত আসামীদের জেলজাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। আসামীরা মীমাংসার সত্বে আদালত থেকে জামিন গ্রহন করে মীমাংসা না করে উল্টো বাদীনিকে বিভিন্ন হুমকি দিতে থাকে।

এ অবস্থায় গত ৫ সেপ্টেম্বর রাতে বাদীনি নুরি বেগম একা ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন এবং আনুমানিক রাত ১টা দেড়টার সময় প্রকৃতির ডাকে ঘর হতে বাহির হলে ওৎপেতে থাকা আসামীরা সংঘবদ্ধভাবে তাকে ওড়না দিয়ে মুখ চেপে ধরে কিল ঘুষি চড় মারতে থাকে এবং বারান্দার আড়া থেকে অন্য একটি ওড়না নিয়ে বারান্দার পাকা পিলারের সাথে বেঁধে ফেলে কথা বলা ও ডাক চিৎকার বন্ধ করে দেয়। হাত বাঁধা অবস্থায় ভয়ে বাদীনি কাপড় চোপড়ে মলমূত্র ত্যাগ করে ফেলে। এ সময় আসামীরা বাদীনির ঘরে ঢুকে ট্যাংক ভেঙে ৪০ হাজার টাকা, ৩৫ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণের চেন ও ২৫ হাজার টাকা মূল্যের কানের ইয়ারিং ছিনিয়ে নেয়।

 আসামী আঃ রহমান সরদার ও তার স্ত্রী নুরজাহান খাতুন তাদের স্বাক্ষরিত ও লিখিত ৩শ টাকা মূল্যমানের ষ্ট্যাম্প যার নং ০৮২২৬৪১, ০৮২২৬৪২, ০৮২২৬৪৩ এবং বাদীনির জামাইয়ের সি আর মামলা ১৫৬/১৭ এর ১শ টাকা মূল্যের ৩২০২৬৯২ নং ষ্ট্যাম্প ও ৫০ টাকা মূল্যের ৩৭৭৯৯৩/১ ষ্ট্যাম্প ও পাসপোর্ট ও ঘরের মধ্যে জমির অন্যান্য দলিল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে চলে যায় বলে বাদীনি নুরি বেগম মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন।   


এবিএন/শাহিন/জসিম/তোহা 

এই বিভাগের আরো সংবাদ