কলেজছাত্রীর আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলার আসামি গ্রেফতার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:৫৩

যশোরের মণিরামপুরে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলার আসামি হারুন অর রশিদকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) ভোর ৪টার দিকে কেশবপুর উপজেলার সাগরদত্ত কাঠি গ্রামের নেজার উদ্দিনের বাড়ি থেকে তাকে আটক করে। সে মণিরামপুর উপজেলার মনোহর নগর (দক্ষিণপাড়া) গ্রামের পীর আলী সরদারের ছেলে।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে র‌্যাবের পাঠানো প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করে র‌্যাব যশোর ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কমাণ্ডার এএসপি শাহিনুর রহমান জানান, র‌্যাব যশোর ক্যাম্পের আভিযানিক দল অভিযান চালিয়ে এজাহারভুক্ত পলাতক আসামি হারুন অর রশিদকে আটক করেছে। তার বিরুদ্ধে মণিরামপুর থানার একটি মামলা রয়েছে। ওই মামলায় সে পলাতক ছিল। তাকে মণিরামপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মণিরামপুর উপজেলার রোজিপুর গ্রামের প্রভাষক সুভাষ হালদার ও স্কুল শিক্ষিকা গীতা রানী হালদারের মেয়ে ভবদহ কলেজের এইচএসসির প্রথম বর্ষের ছাত্রী সাথী হালদার রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।
ছাত্রী সাথী হালদারের পরিবারের অভিযোগ, সাথীর সঙ্গে কেশবপুর উপজেলার পাঁজিয়া গ্রামের বিকাশ পালের ছেলে পংকজ পালের দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এ অবস্থায় পংকজ  সাথীকে বিয়ে না করে ভারতে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর সাথী হালদার আত্মহত্যা করে।

এ ঘটনায় সাথীর বাবা পাঁচজনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলা করেন। মামলার এজাহারভুক্ত আসামি হারুণ অর রশিদকে র‌্যাব আটক করেছে।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ