সোনাগাজীতে বৃদ্ধের বিকৃত লালশার শিকার ৮ বছরের শিশু

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ১৯:০৬

সোনাগাজী উপজেলায় কামাল উদ্দিন নামে ৬০ বছরের এক বৃদ্ধের বিকৃত লালসার শিকার হয়েছে ৮ বছর বয়সী এক শিশু। উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ভাদাদিয়া গ্রামের ওই বৃদ্ধের বিরুদ্ধে শিশুটির ওপর পৈশাচিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত বৃদ্ধ ওই গ্রামের মিন্নত আলী হাজি বাড়ির মৃত আনার আহমদের ছেলে।

গতকাল মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) রাতে শিশুটির পিতা সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। পুলিশ জানায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কামাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। শিশুটি স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেনীর শিক্ষার্থী।

শিশুটির বাবা ও স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে সেই ব্যক্তি জোর করে ওই শিশুর সঙ্গে পায়ুকামে লিপ্ত হয়েছিল। ওই দিন দুপুরে শিশুটি বাড়ির পাশের সড়কে একটি চাকা দিয়ে খেলা করছিল। এ সময় কামাল উদ্দিন তাঁকে ডেকে কাছে নিয়ে মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক পাশের একটি বাগানে নিয়ে পায়ুকামসহ শিশুটির ওপর নানা পৈশাচিক যৌন অত্যাচার চালায়।ঘটনাটি কাউকে না বলতে তাঁকে হুমকি দেন কামাল। সন্ধ্যায় শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে সে তার মাকে ঘটনাটি জানায়।

এরপর তারা বিষয়টি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও এলাকার মানুষজনকে জানান। তাঁরা শিশুর পরিবারকে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রবিউজ্জামান বাবু সমকালকে বলেন, ঘটনাটি ওই শিশুর পরিবারের কাছ থেকে শুনে তিনি থানা-পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় কামাল উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সোনাগাজী মডেল থানার উপপরিদর্শক মো. নুরুল করিম সমকালকে বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর শিশুটিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বুধবার সকালে ফেনী সদর হাসপাতালে শিশুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে।

পরে তাকে ফেনীর সিনিয়র জুড়িশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট জাকির হোসেনের আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দিতে শিশুটি তার উপর পৈশাচিক যৌন অত্যাচারের বিস্তারিত তুলে ধরেন। অভিযুক্ত কামাল উদ্দিনকে আদালতের মাধ্যমে ফেনী জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
 

এবিএন/আবুল হোসেন রিপন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ