তিতাসে পূর্ব শত্রুতার জেরে পাটের গোডাউনে অগ্নিসংযোগের অভিযোগ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২০ জানুয়ারি ২০২০, ১৬:০৫

কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জেল ধরে পাটের গোডাউনে অগ্নিসংযোগ করেছে প্রতিপক্ষ,এমন অভিযোগ গোডাউন মালিক পক্ষের। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল রবিবার দিবাগত রাত আনুমানিক ১২টায় উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের তুলাকান্দি গ্রামের চান বাদশার রক্ষিত পাটের গোডাউনে।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায় গত শনিবার রাতে তুলাকান্দি গ্রামের মৃত খালেকশা ফকিরের বার্ষিক ওরশ মাহফিল উপলক্ষে বাউল গানের আয়োজন করে মরহুমের ছেলে রনি মিয়া। উক্ত গানের অনুষ্ঠানে আগত একই ইউনিয়নের তাইরাকান্দি গ্রামের  বাবু,শাহজালাল, আমিন ও জাহাঙ্গীরসহ একদল যুবক বসার আসন নিয়ে হট্রগোল সৃষ্টি করে,এসময় গানের আয়োজক রনি মিয়া এবং গ্রামের লোকজন তাদেরকে শান্ত হতে বললে উভয়ের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এসময় উভয় পক্ষের অত্তন্ত ১৫জন আহত হয়। আহতরা সকলেই তিতাস এবং দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসাধীন আছে। এঘটনাকে কেন্দ্র করে তাইরা কান্দির একদল যুবক রোববার সারাদিন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে দিনবর তুলাকান্দি গ্রামে মহড়া দেয়। বিষয়টি উভয় পক্ষ স্থানীয়ভাবে মিমাংশায় যাবে বলে স্বিদ্ধান্ত নেয়।

পরে গতকাল রবিবার রাতে তুলাকান্দি গ্রামের পাট ব্যবসায়ী চান বাদশার গোডাউনে রক্ষিত পাটে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে এসময় আগুনের লেলিহানশিখা দেখে আশপাশের লোকজন চিৎকার করলে গ্রামের লোকজন এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে ব্যার্থ হয় ততক্ষনে সব পুড়ে ছাই হয়ে যায়। সকাল আনুমানিক ৮ টায় ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

পাট ব্যবসায়ী চান বাদশা বলেন আমি পাটের ব্যবসা করি প্রায় ৩শ মন পাট ছিল শনিবার রাতের মারামারি ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাইরা কান্দি গ্রামের জাহাঙ্গীর,সাহেব আলী ও মজিবগং আমার পাটের গোডাউনে অগ্নিসংযোগ করেছে।

এদিকে তাইরাকান্দি গ্রামের জাহাঙ্গীর বলেন শনিবার রাতে আমাদের গ্রামের কিছু ছেলে তুলাকান্দি গ্রামে গানের অনুষ্ঠানে গেলে ওই গ্রামের লোকজন তাদেরকে এলোপাতারী পিটিয়ে মারাতœক আহত করে, আহতরা তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি আছে।

এঘটনায় আমাদের গ্রামের সাহেব আলী বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দিলে চান বাদশার স্বজনরা এসে বিচারের আশ^াস দিলে আমরা চলে আসি। অপর দিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ব্যক্তি সাংবাদিকদের  বলেন তৃতীয় কোন পক্ষ অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ধারনা করছেন। তারা আরো বলেন সঠিক ভাবে তদন্ত করলে আগুনের রহস্য উদঘাটন হবে।


এবিএন/কবির হোসেন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ