অভয়নগরে রাস্তা রক্ষায় ড্রেন না করার আবেদন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ জানুয়ারি ২০২০, ২০:০৪

অভয়নগর উপজেলা সুন্দলী ইউনিয়নে একটি সরকারি রাস্তা রক্ষায় ড্রেন না করার আবেদন করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার ওই ইউনিয়নের সুন্দলী গ্রামে ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাজমুল হুসেইন খাঁন বরাবর একটি লিখিত আবেদনপত্র জমা দেন।

প্রায় ৩০ জন স্বাক্ষরিত আবেদনপত্রে বলা হয়েছে, আমরা সুন্দলী ইউনিয়নের সুন্দলী গ্রামে ইউনিয়ন পরিষদের সামনের পাড়ার বাসিন্দা। আমাদের চলাচলের জন্য ৬ ফুটের (একমাত্র) একটি ইট সলিং রাস্তা আছে। রাস্তাটির পাশ দিয়ে একটি কাচা ড্রেন আছে। ওই ড্রেনটি ব্যবহার করে স্থানীয় সন্নাসী কবিরাজ নামের এক ব্যক্তি ইরি মৌসুমে পানি প্রবাহের জন্য কৃষকদের নিকট হতে টাকা আদায় করেন। যে কারণে সরকারি ওই রাস্তাটি প্রায় সময় ক্ষতিগ্রস্থ হয়। মেরামতের জন্য সন্নাসী কবিরাজ কখনও আর্থিক সহযোগিতা করেন না। বর্তমানে ওই ড্রেন দিয়ে পচা ও দূর্গন্ধযুক্ত পানি প্রবাহ এবং রাস্তা রক্ষার স্বার্থে আমরা এলাকাবাসী ড্রেনটি বন্ধ করে দিয়েছি।এলাকাবাসীর দাবি, সরকারি রাস্তার পাশে সরকারি জমিতে নতুন করে ওই ড্রেনটি পাকা করে নির্মাণ করা হলে এলাকাবাসী যেমন উপকৃত হতো। তেমনি একমাত্র চলাচলের রাস্তাটি ভবিষ্যতে ক্ষতিগ্রস্থ হতো না।

এ ব্যাপারে সন্নাসী কবিরাজের সাথে কথা হলে তিনি জানান, জমিতে পানি দেওয়ার জন্য ড্রেনটি এলাকাবাসী করেছিল। স্থানীয় কয়েকজন বিষয়টিকে ভিন্ন দিকে নিতে ড্রেন বন্ধ করে ষড়যন্ত্র শুরু করছেন। আমার বিরুদ্ধে পানি প্রবাহের জন্য টাকা নেওয়ার কথাটি মিথ্যা। সুন্দলী ইউপি চেয়ারম্যান বিকাশ রায় কপিল বলেন, ড্রেনটি সরকারি জমির মধ্যে বলে মনে হয়। এক সময় এলাকাবাসী নিজ উদ্যোগে ড্রেনটি করেছিল। এলাকাবাসীর মধ্যে পক্ষ-বিপক্ষ হওয়ায় সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। মিমাংসার চেষ্টা করা হচ্ছে।
 
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাজমুল হুসেইন খাঁন বলেন, একটি লিখিত অভিযোগপত্র পেয়েছি। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসকে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। উপজেলা উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম জানান, সরেজমিনে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
 

এবিএন/সেলিম হোসেন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ