চিতলমারীতে করোনা জয়ী কবিরুল পেল আর্থিক অনুদান

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৪ মে ২০২০, ২০:৫০

বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার পাটরপাড়া গ্রামের করোনা জয়ী মো. কবিরুল মোল্লা উপহারস্বরুপ প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের ৩০ হাজার টাকার চেক পেয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে থেকে তাকে এ চেক প্রদান করা হয়। এ সময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গতকাল বুধবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মারুফুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মারুফুল জানান, করোনায় আক্রান্ত মো. কবিরুল মোল্লা ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার আজিমপুর ইউনিয়নের পাতরাইল জামে মসজিদের মোয়াজ্জিম ছিলেন।

গত ৯ এপ্রিল তিনি ফরিদপুরের পাতরাইল থেকে পাটরপাড়া গ্রামে আসেন। খুঁসখুঁসে কাশিসহ করোনা আক্রান্তের উপসর্গ থাকায় তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখে ১১ এপ্রিল নমুনা পরিক্ষার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আইইডিসিআরের রিপোর্টে তার শরীরে করোনা পজেটিভ আসে।

এরপর ১৫ এপ্রিল বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ ঘটনাস্থলে গিয়ে পাটরপাড়া গ্রামে আক্রান্তের বাড়ীসহ আশপাশের ১৬ বাড়ী লকডাউন ঘোষণা করেন। এরপর থেকে হোম আইসোলেশনে রেখেই তাকে স্বাস্থ্য বিভাগ চিকিৎসাসেবা শুরু করেন।

১৮ এপ্রিল ওই রোগীর দ্বিতীয় বারের মত নমুনা সংগ্রহ করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আইইডিসিআরের রিপোর্টে তার শরীরে করোনা নেগেটিভ আসে।

২০ এপ্রিল তার তৃতীয়বারের মত নমুনা সংগ্রহ করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তৃতীয় টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে ২৩ এপ্রিল স্বাস্থ্য বিভাগ কবিরুলকে করোনামুক্ত ঘোষণা করেন।

করোনা জয়ের পর তিনি প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে আর্থিক অনুদান চেয়ে একটি আবেদন করেন। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে উপহার স্বরুপ প্রেরিত ৩০ হাজার টাকার চেকটি মঙ্গলবার দুপুরে তাকে প্রদান করা হয়।

করোনা জয়ী মো. কবিরুল মোল্লা সাংবাদিকদের বলেন, আমি এখন পুরোপুরি সুস্থ। হোম আসোলেশনে ১৪ দিন কেবল ডাক্তারি পরামর্শ মেনে চলেছি আর কোরআন শরিফ পাঠ করেছি। আল্লাহর রহমতে এখন আমি পরিবারের সকলকে নিয়ে ভাল আছি।

এবিএন/এস এস সাগর/গালিব/জসিম

 

 

 

 

 

 

 

 


   

 

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ