ছাতকে এলাকাবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে সড়ক সংস্কার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ জুলাই ২০২০, ১৪:২৪

সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক সদর ইউনিয়নের শ্যামপাড়া-কান্দিগাঁও সড়ক বন্যায় তলিয়ে গিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বন্যার পানি সড়ক থেকে নেমে পড়লে এ সড়কটি যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এতে ছাতক সদর ও উত্তর খুরমা ইউনিয়নের কয়েক সহ¯্রাধিক লোকজনকে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।

বন্যায় সড়কটির পাকা অংশ উঠে গিয়ে বড়  বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এ সড়ক দিয়ে বর্তমানে রিকশা চলাচলও বন্ধ হয়ে পড়েছে। ২০০৮ সাল থেকে সড়কটিতে কোনো সংস্কার কাজ হচ্ছে না। বিগত দিনে আরো একাধিকবার এলাকার লোকজন স্বেচ্ছাশ্রমে সড়কটি সংস্কার করে যাতায়াত উপযোগী করেছেন। বর্তমানে বন্যায় এ সড়কের ১ কিলোমিটার অংশের ভাঙ্গা মারাত্মক আকার ধারণ করেছে।

ফলে সড়কটি চলাচলের উপযোগী করতে গতকাল বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী এলাকাবাসী সেচ্ছাশ্রমে সড়কটি চলাচলের উপযোগী করেছেন।
এলাকার আব্দুর রহিম, সাবেক মেম্বার সমরুজ আলী, সাবেক মেম্বার রইছ আলী, সাবেক মেম্বার দুলাল সরকার, সাবেক মেম্বার জাহেদুল ইসলাম আহবাব, বর্তমান ইউপি সদস্য আতাউর রহমান, রমাকান্ত দাস রানা, মাফিজ আলী, কফিল উদ্দিন, শাহবাজ আলী, সানুর আলী, সুরুজ আলী, আতিক মিয়া, হাবিবুর রহমান, হাসনু মিয়াসহ প্রমূখ লোকজন সড়ক সংস্কারের উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

পরে এলাকাবাসী মিলে বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী সেচ্ছাশ্রমে শ্যামপাড়া-কান্দিগাঁও সড়কের ভাঙ্গা প্রায় ১ কি.মি. অংশ সংস্কার করেছেন।

এ ব্যাপারে ছাতক সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম জানান, বুধবার তিনি শ্যামপাড়া-কান্দিগাঁও সড়ক পরিদর্শন করেছেন। বন্যায় এ সড়কটি মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যারা উদ্যোগ নিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমে সড়ক সংস্কার করেছেন তাদের এই মহৎ উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে।

তিনি জানান, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে পুরো এই সড়কটি দ্রুত সংস্কারের ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এবিএন/অরুন চক্রবর্তী/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ