স্বর্ণদ্বীপে অবমুক্ত করা হলো আটক দেড় শতাধিত বক পাখি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৪ জুলাই ২০২০, ১৮:৩৮

নোয়াখালী সুবর্ণচরে খোলাবাজারে বিক্রির সময়ে আটককৃত প্রায় দেড় শতাধিক বক পাখি গত আটদিন লালন-পালন শেষে স্বর্ণদ্বীপের বনাঞ্চলে অবমুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।

শনিবার দুপুরের দিকে উপজেলা বন বিভাগের সহযোগিতায় উপকূলীয় পরিবেশ রক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক ও স্থানীয় এক সংবাদকর্মীর উদ্যোগে বকগুলো অবমুক্ত করা হয়।

জানা যায়, গত ২৪ জুন একটি চক্র নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপ থেকে বক পাখির বাচ্চাগুলোকে বিক্রির জন্য সুবর্ণচর উপজেলার ছমিরহাট বাজার ও চরক্লার্ক বাংলাবাজারে আনলে স্থানীয় লোকজন উপকূলীয় পরিবেশ রক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়ক ও স্থানীয় এক সংবাদকর্মীকে জানায়।

খবর পেয়ে ওই সাংবাদিক স্থানীয় এক পরিবেশ রক্ষা কর্মীকে সাথে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় দেড় শতাধিক বকের বাচ্চা উদ্ধার করেন। পরে তারা উদ্ধার করা সেই বক পাখিগুলো সূবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এএসএম ইবনুল হাসান ইভেনের কাছে হস্তান্তর করেন। তিনি পাখিগুলোকে নিজের তত্ত্বাবধানে রেখে পরিপূর্ণভাবে সুস্থ করে আজ শনিবার অবমুক্ত করে দেন।

এ বিষয়ে ওই সাংবাদিক জানান, বিষয়টি সুবর্ণচর উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা বন কর্মকর্তাকে জানানো হলে বনরক্ষী পাঠিয়ে পাখিগুলো আমরা যে বাগান থেকে আটক করা হয়েছে পাখি গুলো আবার সে বনে অবমুক্ত করে দিয়েছি। এসময় উপজেলা বন কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন ও চর আলাউদ্দিন রেঞ্জার জাহাঙ্গীর আলম এর উপস্থিত ছিলেন।

তিনি আরও বলেন, ২৪ জুন থেকে ৪ জুলাই ১১দিন লালন পালন শেষে শনিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অনুরোধে উপজেলা বন কর্মকর্তা ও রেঞ্জ কর্মকর্তারা দুপুর ১টায় স্বর্ণদ্বীপে প্রাকৃতিক অভয়ারণ্যে বক পাখির বাচ্চাগুলো অবমুক্ত করা হয়।

সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইবনুল হাসান ইভেন বলেন, স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী ও উপকূলীয় পরিবেশ রক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়কের সহযোগিতায় বকগুলো আমরা উদ্ধার করে স্বর্ণদ্বীপে অবমুক্ত করি। আমরা এই পাখিগুলোকে অবমুক্ত করে নিজেদের কাছে অনেক বেশি ভালো লাগছে।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ