বাগমারায় উপজেলা শিক্ষক কল্যাণ সমিতির মতবিনিময় সভা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৪৯

রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য, সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেছেন, প্রতিটি শিক্ষকের দায়িত্ব হচ্ছে শিক্ষার্থীদের মেধার বিকাশ ঘটানো। শিক্ষকদের উচিৎ শিক্ষার্থীদের কল্যাণে কাজ করা। দেশের শিক্ষার মানোন্নয়নে কাজ করা। শিক্ষকদের মূল্যায়ন হবে তখনই যখন তার শিক্ষার্থীরা মানুষ হিসেবে গড়ে উঠবে।

বর্তমানে করোনা ভাইরাসের কারণে বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান কার্যক্রম। এতে শিক্ষার্থীদের পড়তে হয়েছে অপূরণীয় ক্ষতির মুখে। এই ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া সম্ভব না। করোনাকালে সরকার যে শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করেছে সে বিষয়ে শিক্ষকদের সঠিক দায়িত্ব পালন করতে হবে। সে কথা মাথায় রেখে শিক্ষকদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে।

শনিবার বেলা ১০ টায় উপজেলা সালেহা ইমারত কোল্ড স্টোরেজ মিলনায়তনে উপজেলা শিক্ষক কল্যাণ সমিতি কর্তৃক আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান উপদেষ্টার বক্তব্য প্রদান কালে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, বাতির নিচে অন্ধকার রেখে লাভ নেই। আগে সেই অন্ধকার দূরকরতে হবে। শিক্ষক কল্যাণ সমিতির প্রধান লক্ষ্য হওয়া উচিত শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধি করা। সমিতির মাধ্যমে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে সে অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের পাঠদান করতে হবে। শিক্ষা সহ প্রতিটি ক্ষেত্রে বাগমারা হবে দেশের মডেল উপজেলা। এর জন্য যাযা করা প্রয়োজন সেটা নির্ধারণ করা জরুরী। শিক্ষক সমিতির চলবে তার গঠণতন্ত্র মোতাবেক। এখানে এসে কোন শিক্ষক যেন হয়রানীর শিক্ষার না হয়। বাগমারা উপজেলা শিক্ষক কল্যাণ সমিতি যেন দেশের মধ্যে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে। সমিতির মাধ্যমে শিক্ষা ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে হবে। শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধির জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে। তাহলেই শিক্ষক কল্যাণ সমিতি গঠণ করা স্বার্থক হবে।

উপজেলা শিক্ষক কল্যাণ সমিতির সভাপতি আসাদুল ইসলাম সান্টুর সভাপতিত্বে এবং সাংগঠনিক সম্পাদক জহুরুল ইসলামের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সুলতানপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম, নাজিরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাজেদুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মতিউর রহমান টুকু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজ উদ্দীন সুরুজ, সহ-দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ হাতেম আলী, মাস্টার বকুল খরাদী, উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি মাস্টার মরিয়ম বেগম, সাধারণ সম্পাদক কহিনুর বানুসহ উপজেলা শিক্ষক কল্যাণ সমিতির আওতাভুক্ত ৮৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ।

মতবিনিময় শেষে উপজেলা শিক্ষক কল্যাণ সমিতির নতুন কমিটি গঠণ করা হয়েছে। এতে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন একডালা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসাদুল ইসলাম সান্টু, সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন সালেহা ইমারত গার্লস একাডেমির প্রধান শিক্ষক মতিউর রহমান এবং সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন হাট-গাঙ্গোপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম।  
    
এবিএন/জিল্লুর রহমান/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ