কাঁচা চামড়া রফতানিতে সরকারের অনুমতি প্রদান

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৪ আগস্ট ২০১৯, ০০:৩৮

ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতকরণে কুরবানির পশুর কাঁচা চামড়া রফতানির অনুমতি প্রদান করেছে সরকার। সরকারের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন আড়তদাররা। অপরদিকে এ সিদ্ধান্তকে আত্মঘাতী বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ট্যানারি মালিকরা।

মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার কাঁচা চামড়া রফতানির অনুমতি প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্ধারিত মূল্যে কাঁচা চামড়ার ক্রয় এবংবিক্রয় নিশ্চিত করতে ব্যবসায়ীদের সকল প্রকার সহযোগিতা কাম্য।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বিভিন্ন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যমতে লক্ষ্য করা যাচ্ছে, নির্ধারিত মূল্যে কোরবানির পশুর চামড়া ক্রয়-বিক্রয় হচ্ছে না। এ বিষয়ে চামড়া শিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যবসায়ীদের দায়িত্বশীল হওয়ার আহবান জানানো হচ্ছে।

একই সঙ্গে কাঁচা চামড়ার গুণাগুণ যেন নষ্ট না হয়, সেজন্য স্থানীয়ভাবে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে চামড়া সংরক্ষণের জন্য ব্যবসায়ী ও স্থানীয় প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

এদিকে সরকারের এমন সিদ্ধান্তে আড়তদাররা আনন্দিত হলেও চিন্তায় ট্যানারি মালিকরা। এ বিষয়ে ট্যানারি মালিকদের অভিযোগ, ট্যানারিগুলোর মূল কাঁচামাল কাঁচা চামড়া। এটি সরাসরি রফতানি হলে ট্যানারি শিল্প ধ্বংস হয়ে যাবে। সরকারের এমন সিদ্ধান্তকে তারা আত্মঘাতী হিসেবে বিবেচনা করছেন।

এ বছর অসাধু সিন্ডিকেটের কারণে এবার কুরবানির পশুর চামড়ার দাম তলানিতে নেমেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গত ৩১ বছরের মধ্যে এবারই সবচেয়ে কম দামে কুরবানির পশুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে। মৌসুমি ব্যবসায়ীরা ৮০ হাজার টাকার গরুর চামড়ার দাম দিচ্ছেন ২০০ টাকারও কম। ১ লাখ টাকার গরুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে ৩০০ টাকারও কম।

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সরকার ও ব্যবসায়ীরা মিলে কোরবানির পশুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে। এবার ঢাকায় প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়ার দাম ৪৫-৫০ টাকা এবং ঢাকার বাইরে ৩৫-৪০ টাকা হবে। গত বছর প্রতি বর্গফুটের দাম একই ছিল। ২০১৭ সালে প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়ার দাম ছিল ঢাকায় ৪৫-৫৫ টাকা এবং ঢাকার বাইরে ৪০-৪৫ টাকা।

এছাড়া সারাদেশে খাসির চামড়া প্রতি বর্গফুট ১৮-২০ টাকা এবং বকরির চামড়া ১৩-১৫ টাকায় সংগ্রহ করতে বলা হয়েছে ব্যবসায়ীদের। গতবার খাসির চামড়ার দামও ছিল একই। তবে ২০১৭ সালে খাসির চামড়ার দাম ছিল প্রতি বর্গফুট ২০-২২ এবং বকরির চামড়া ১৫-১৭।

সরকার কর্তৃক নির্ধারিত দামে চামড়ার ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় দেশের বিভিন্ন স্থানে কুরবানির পশুর চামড়া মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়। সারাদেশে এই নিয়ে বিভিন্নভাবে চলছে আন্দোলন। তারই প্রেক্ষিতে সরকার থেকে এই ঘোষণা এলো।  

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ