সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচিতে ১ কোটি নাগরিককে অন্তর্ভুক্ত করার পরিকল্পনা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০২ জুন ২০২০, ১৯:৫৪ | আপডেট : ০২ জুন ২০২০, ২০:০৩

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ২০২০-২১ অর্থবছরের আসন্ন বাজেটে প্রায় এক কোটি নাগরিককে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় আনার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার।

সূত্রমতে, এই খাতে ১ হাজার ৬৩৩ কোটি টাকা বরাদ্দ বাড়ানো হবে এবং উপকারভোগীদের সংখ্যা ৮১ লাখ থেকে ৯৮ লাখে নেয়া হবে।

আসন্ন বাজেটে ৭৬ হাজার কোটি বরাদ্দ দেয়া হবে এবং বিদায়ী বাজেটে যার পরিমাণ ছিল ৭৪ হাজার ৩৬৭ কোটি টাকা।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, সাধারণত প্রতি বছর সরকার বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় সুবিধাভোগীর সংখ্যা দশ শতাংশ হারে বাড়িয়ে থাকে।

তবে এবার কোভিড-১৯ মহামারির কারণে কয়েকমাস ধরে স্থবির অর্থনৈতিক পরিস্থিতির কারণে দেশে দুস্থ মানুষের সংখ্যা অস্বাভাবিক হারে বাড়বে বলে সরকার ধারণা করছে।

তবে, বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় প্রত্যেক ব্যক্তি যে পরিমাণ অর্থ পাবে তা বৃদ্ধি পাবে না - বরং প্রতিটি প্রকল্পের আওতায় থাকা মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, ‘সরকার আগামী বাজেটে উপকারভোগীদের সংখ্যা ২০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে এবং এ লক্ষ্যে ৭৬ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়ার পরিকল্পনা করছে।’

ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘সুবিধাভোগীরা এখন যে পরিমাণ অর্থ পাচ্ছেন, সে পরিমাণ অর্থই পাবেন।’

আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য ইতোমধ্যে পরিবহন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও কৃষি খাতকে গুরুত্ব দিয়ে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) ২ লাখ ৫ হাজার ১৪৫ কোটি টাকা অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (এনইসি)।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল আগামী ১১ জুন ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন করবেন, যার পরিমাণ প্রায় ৫ লাখ ৮০ হাজার কোটি টাকা হতে পারে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ