এবার ফেলুদা চরিত্রে যিশু সেনগুপ্ত

ঢাকা, ১৫ মে, এবিনিউজ : টালিগঞ্জে গোয়েন্দা চরিত্রগুলো রমরমা ব্যবসা করছে। অন্যদিকে যোগ্য অভিনেতা কম হওয়ায় যে ব্যোমকেশ, সে-ই কখনো ফেলুদা। না, আবির চট্টোপাধ্যায়ের কথা হচ্ছে না। ঠিক তার মতোই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে যিশু সেনগুপ্তর ক্ষেত্রে।

আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, ফেলুদা হতে চলেছেন যিশু। পরিচালক অবশ্যই সন্দীপ রায়।

এবারের ছবির গল্প ‘ছিন্নমস্তার অভিশাপ’ নিয়ে। শোনা যাচ্ছে, প্রযোজনা সংস্থা নতুন মুখ নিতে আগ্রহী। যাতে ফ্র্যাঞ্চাইজি এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়। আর সব্যসাচী চক্রবর্তী সে ক্ষেত্রে মানানসই হচ্ছেন না। অতএব নতুন মুখ খোঁজার পালা শুরু। আর সেখানেই যিশুর নাম উঠে আসছে।

এদিকে অঞ্জন দত্ত জানিয়েছেন, তিনি আর ব্যোমকেশ বক্সী করবেন না। তাই যিশুকে সত্যান্বেষীর ভূমিকায় যে দেখা যাবে না, তা মোটামুটি পাকা। তাই ফেলুদা হিসেবে এখন তিনিই সেরা বাজি।

গোয়েন্দা হিসেবে যিশুর গ্রহণযোগ্যতা ব্যোমকেশেই প্রমাণ হয়ে গিয়েছে। তাই ফেলুদা হিসেবেও তাকেই ভাবা যেতে পারে। কিন্তু যিশু আইনি ঝামেলায় পড়তে পারেন। কারণ ব্যোমকেশের প্রযোজকের সঙ্গে চুক্তি রয়েছে তার। এ চুক্তি নাকি ফেলুদা হওয়ার ক্ষেত্রে কাঁটা। তবে আশা করা হচ্ছে, অঞ্জন দত্ত যেহেতু ব্যোমকেশ নির্মাণ করছেন না, প্রযোজক নিশ্চয় যিশুর ভোল পাল্টানোতে আপত্তি করবেন না।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি