সুশান্তের মৃত্যুতে অচেতন করার বন্দুক ব্যবহার করা হয়েছিল?

  জি নিউজ

১৩ আগস্ট ২০২০, ১০:২১ | অনলাইন সংস্করণ

সুশান্তকে মারার জন্য অচেতন করার বন্দুক ব্যবহার করা হয়ে থাকতে পারে। সম্প্রতি এক টুইটার ব্যবহারকারী এমনই দাবি করেন। তাঁর সেই টুইট ভাইরাল হয়ে যায়। আর এরপরই সুশান্ত মৃত্যুর ঘটনায় সিবিআই, ইডি-র পাশাপাশি এনআইএ-তদন্ত করুক এমনই দাবি করেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ সুব্রমনিয়াম স্বামী।

টুইটার ব্যবহারকারী লেখেন, ''আজ অচেতন করার বন্দুকের (ষ্টান গান) ব্যবহার সম্পর্কে পড়লাম। যে দাগগুলি ছিল, সেগুলি অচেতন করার এই বন্দুকের ব্যবহারেই হওয়া সম্ভব। পঙ্গু করে দিতে এধরনের বন্দুক ব্যবহার করা হয়ে থাকে।'' 

এই টুইটটি ভাইরাল হয়ে যাওয়ায় নজর এড়ায়নি বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। 

তিনি লেখেন, '' কীভাবে এই বন্দুকটি আরব সাগরের সীমান্তবর্তী দেশ থেকে চোরাপথে আনা হয়েছিল? এনআইএ-এর এই তদন্তে যোগ দেওয়া উচিত।''

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সুশান্তের দেহ যে অ্যম্বুলেন্স চালক নিয়ে গিয়েছিলেন, তিনি দাবি করেন, ''সুশান্তের পা মোচরানো ছিল। গোটা দেহ হলুদ হয়ে গিয়েছিল।''

 

এদিকে সুশান্ত মামলায় ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করছে সিবিআই। এই মামলায় ইতিমধ্যেই সুশান্তের বাবা, ও দিদি মিতু সিংয়ের বয়ান রেকর্ড করেছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। সিবিআই তদন্তের শুরুতেই সুশান্তকে খুন করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন সুশান্তের বাবা কে কে সিং রাজপুত।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ