অতিরিক্ত ঘুমে বাড়াচ্ছেন নিজের বিপদ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ০১:১৯

সারাদিনের ক্লান্তি দূর করতে কিংবা পরদিনের জন্য শক্তি সঞ্চয় করতে ঘুমের বিকল্প নেই। রাতে ভালো ঘুমের পর সকালে তরতাজা মনে জীবন নতুন করে শুরু করা যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে একজন সুস্থ মানুষের দৈনিক অন্তত সাত ঘণ্টা ঘুমানো উচিত। কিন্তু কেউ যদি এর বেশি সময় ঘুমায়? সেটি কি শরীরের জন্য ভালো?

অনেক ব্যক্তিই দৈনিক নয় ঘণ্টারও বেশি সময় ঘুমান। কেউ কেউ আবার বেশি রাত করে ঘুমিয়ে অনেক বেলা করে ঘুম থেকে ওঠেন। অর্থাৎ সব মিলিয়ে নয় থেকে দশ ঘণ্টা ঘুমানো হয় তাদের। গবেষকরা এমন ব্যক্তিদের সতর্ক করে জানাচ্ছেন, অতি বিশ্রামেই লুকিয়ে রয়েছে বিপদ।

গবেষকরা বলছেন, যারা নয় ঘণ্টার বেশি সময় ঘুমিয়ে কাটান তাদের স্ট্রোকের সম্ভাবনা ২৩ শতাংশ বেশি। কেউ কেউ আবার দুপুরে খাওয়ার পর হালকা ঘুমান। তারা ভাবেন খাবারের পর একটু বিছানায় গড়িয়ে নিলে দেহে নতুন করে শক্তি সঞ্চিত হয়। আসলে তা ঠিক নয়।

গবেষকরা এ বিষয়েও দিচ্ছেন সতর্কবার্তা। জানাচ্ছেন, দুপুরের ন্যাপে দেড় ঘণ্টা সময় যারা ব্যয় করছেন তাদের হৃদরোগের সম্ভাবনা বেড়ে যায় ২৫ শতাংশ।

প্রশ্ন হলো, তাহলে ঘুমের সঠিক সময় কতক্ষণ? গবেষকরা বলছেন দৈনিক ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুমানো শরীরের জন্য সবচেয়ে বেশি উপকারী। অতিরিক্ত ঘুম বা ন্যাপ দেহের কোলেস্টেরল বাড়িয়ে দেয়। যারা ৯ ঘণ্টা বা তারও বেশি সময় ঘুমান, তাদের কোমর চওড়া হতে থাকে। একইসঙ্গে বাড়ে হৃদরোগের সম্ভাবনা।

অতিরিক্ত ঘুমের অভ্যাস থাকলে আজই ছাড়ুন। তাই বলে ৭ ঘণ্টার কম ঘুমাবেন না যেন।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ