লকডাউনের মেয়াদ বাড়ল মালয়েশিয়ায়

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১৪:০৩

করোনা সংক্রমণের মধ্যে মালয়েশিয়ায় আবারও লকডাউনের মেয়াদ বাড়াল দেশটির সরকার। দুই সপ্তাহের জন্য ১৪ অক্টোর থেকেই ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত কার্যকর করা নতুন বিধি-নিষেধ আরোপের পর করোনা নিয়ন্ত্রণে না আসায় পুনরায় নিয়ন্ত্রণ আদেশ আরও দুই সপ্তাহের জন্য বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

দেশটির সাবাহ, পোর্ট ক্লাং ও কেদাহ রাজ্য মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডারের (এমসিও) লকডাউনে থাকলেও নতুন করে চলতি মাসের ১৪ তারিখ থেকে আওতাভুক্ত হয় রাজধানীর কুয়ালামাপুর, পুত্রাজায়া, সেলাংগর, সাবাহ রাজ্যে। গত ১৪ অক্টোবর রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে ২ সপ্তাহের জন্য এই (আরএমসিও) লকডাউন ঘোষণা করা হয়। যা কোভিড-১৯ শর্তাধীন মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও) আজ থেকে আবারও ২ সপ্তাহের জন্য বাড়ানো হয়েছে। মালয়েশিয়ার সিনিয়র মন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি ইয়াকোব সোমবার এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি এবং নিয়ন্ত্রণে না আসার কারণেই নিয়ন্ত্রণ আদেশ আরও দু'সপ্তাহের জন্য বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সংক্রমণের আরও বিস্তার রোধে জাতীয় সুরক্ষা কাউন্সিল সেলানগর, কুয়ালালামপুর এবং পুত্রজায়ায় চলমান এমসিও আরও দু- সপ্তাহ পর্যন্ত বাড়াতে সম্মত হয়েছে।

সোমবার এক ব্রিফিং এ মন্ত্রী জানান, এটি আগামী ২৭ অক্টোবর থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত কার্যকর হবে।

ইসমাইল সাবরি বলেন, শর্তসাপেক্ষে এমসিওর অধীনে আন্তঃজেলা ভ্রমণের অনুমতি দেওয়া হবে না এবং যে সমস্ত কর্মচারীদের এটি করতে হবে তাদের অবশ্যই তাদের নিয়োগকর্তার একটি চিঠি থাকতে হবে এবং তাদের কর্মীদের পাস দেখিয়ে দিতে হবে।

স্কুল, কিন্ডারগার্টেন, নার্সারি, উচ্চতর শিক্ষার ইনস্টিটিউট ও তাহিফিজ এই সময়ের মধ্যে বন্ধ থাকবে। এই অঞ্চলগুলোতে কোভিড -১৯ আক্রান্ত বাড়ার পরে সেলানগর, কুয়ালালামপুর এবং পুত্রজায়াকে প্রাথমিকভাবে শর্তাধীন এমসিওর অধীনে ১৪ থেকে ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত রাখা হয়েছিল।

চলমান এমসিওতে সেলঙ্গরে প্রদেশের হালু ল্যাঙ্গাট, পেটালিং, গোম্বাক, ক্লাং, কুয়ালা লঙ্গাত এবং সেপাং জেলাগুলি সমস্ত রেড জোন। ফেডারেল টেরিটরির কুয়ালালামপুরে একটি এলাকাকে রেড এবং পুত্রজায়াকে ইয়েলো জোনে রাখা হয়েছে।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ