আবারও ভাঙা হল শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৩ আগস্ট ২০১৯, ১২:১৭

আরও একবার ভাঙচুর করা হল ভারতীয় জন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের ভিলওয়াড়া জেলার সাহাপুরে। একদল দুষ্কৃতী হঠাৎই রবিবার মধ্যরাতে মূর্তিটি ভাঙচুর করে বলে জানা গিয়েছে।

সাহাপুর পুলিশ স্টেশনের ইন-চার্জ ভজন লাল সংবাদমাধ্যমকে এই বিষয়ে জানিয়েছেন, “অচেনা দুষ্কৃতীরাই রবিবার মধ্যরাতে ভাঙচুর করে। এই ঘটনার তদন্ত করার জন্য একটি দল তৈরি করা হয়েছে।”

স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন, জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপের ফলেই এই ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় এক বাসিন্দার মতে, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের সবসময় জম্মু ও কাশ্মীরের স্পেশাল স্ট্যাটাসের বিরুদ্ধে ছিলেন, প্রতিবাদ জানিয়েছেন একাধিকবার। সেই কারণে এইরকম ঘটনা অস্বাভাবিক কিছু না।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে শুরু হয়েছে তদন্ত। ২০১৮ সালের মার্চ মাসে কালিঘাট চত্বরে ও আসামের কোকড়াঝাঁড়ে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি ভাঙচুর করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী সেই ঘটন্র তীব্র নিন্দা করেছিলেন। 

শ্যামাপ্রসাদের ১১৮ তম জন্মদিন উপলক্ষে কাশ্মীরে প্রথম বসানো হয়েছে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি। জুলাইয়ের ৬ তারিখ কাশ্মীরের কাঠুয়ায় বিজেপির অধুনালুপ্ত ‘ভারতীয় জনসঙ্ঘ’ (পরে বিজেপি)-র প্রতিষ্ঠাতার মূর্তি প্রতিষ্ঠা করা হয়।

প্রসঙ্গত, জহরলাল নেহরুর কাশ্মীর নীতির বরাবরই সমালোচক ছিলেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় ৷ জনসংঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ বিরোধিতা করেছিলেন আর্টিকেল ৩৭০ এবং জম্মু ও কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়ার। সেই সময় কংগ্রেসের কাছে তাঁর প্রশ্ন ছিল,কেন সেখানে ঢোকার জন্য বিশেষ অনুমতি নেওয়ার দরকার হবে। তারই প্রতিবাদে কাশ্মীরে ঢুকতে গিয়েই গ্রেফতার এবং বন্দিদশায় মৃত্যু হয়েছিল শ্যামাপ্রসাদের। 

এবিএন/নির্মল/জসিম/এনকে

এই বিভাগের আরো সংবাদ