চীনের একটি শহরে বিউবোনিক প্লেগ নিয়ে সতর্ক অবস্থান

  সিএনবিসি

০৬ জুলাই ২০২০, ১১:২৭ | আপডেট : ০৬ জুলাই ২০২০, ১১:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

একে তো করোনাভাইরাস মহামারিতে বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। এর থেকে বাঁচার কোনো ওষুধ এখনো খুঁজে পাননি বিজ্ঞানীরা। চীন থেকে এই ভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তার ওপর এবার সেই চীন থেকেই নতুন করে প্লেগ রোগ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

নর্দার্ন চিনের একটি শহরে দু’জন ইতিমধ্যেই আক্রান্ত হয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। রবিবারই বিশেষ সতর্কতা জারি করেছে চীন। বায়ানুর নামের ওই জায়গায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। 

বায়ানুরের একটি হাসপাতালে শনিবার দু’জনকে প্লেগ আক্রান্ত বলে সন্দেহ করা হয়। ২০২০ সালের শেষ পর্যন্ত এই সতর্কতা জারি থাকবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, বর্তমানে ওই শহরে মহামারির আকার ধারণ করার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই মানুষকে সতর্ক হতে হবে। অসুস্থ বোধ করলেই হাসপাতালে যেতে হবে।

ল্যাব টেস্ট রেজাল্টে ইতিমধ্যেই ওই দু’জনের প্লেগের উপস্থিতি নিশ্চিত করা হয়েছে। একজনের বয়স ২৭ বছর ও একজন তারই ভাই, যার বয়স ১৭ বছর। এদের দু’জনকে দুটি আলাদা হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা চালানো হচ্ছে।

জানা গেছে, দ্বিতীয় জন ইঁদুরের মাংস খেয়েছিল। তার জেরেই এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটে।ওই দু’জনের সংস্পর্শে এসেছে এমন ১৪৬ জনকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এছাড়া সাধারণ মানুষকে ইঁদুরের মাংস খেতে নিষেধ করা হয়েছে।

বিউবনিক প্লেগ হল একটি ব্যাকটিরিয়া জনিত রোগ। যা মাছি থেকে ছড়ায় বলে জানা যায়। ঠিক সময়ে চিকিৎসা না হলে খুব কম সময়ের মধ্যে মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে বলে জানায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। গত বছর কাঁচা ইঁদুরের মাংস খেয়ে এই রোগে চীনের মঙ্গোলিয়ান প্রদেশে এক দম্পতির মৃত্যু হয়।

এবিএন/সাদিক/জসিম/জনি

এই বিভাগের আরো সংবাদ