কনেকে মাঝ রাস্তায় দাঁড় করিয়ে রেখেই পালাল বর! এল একটা মেসেজ

  জি নিউজ

১১ জুলাই ২০২০, ১৩:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবাংলার হুগলির মগরা এলাকায়। পুলিশি নিষ্ক্রয়তার অভিযোগ তুলে শেষমেশ আদালতের দ্বারস্থ হন ওই মহিলা।

ত্রিবেণী কালীতলার ওই মহিলা স্বামী পরিত্যক্তা। বছর দু'য়েক ধরে ওই মহিলার সঙ্গে স্বামীর বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছে। অভিযোগ,  দুই সন্তানের মা ওই মহিলার অসময়ের সুযোগ নিয়ে তার সঙ্গে আলাপ জমায় ত্রিবেনী কাঁঠালতলার বাসিন্দা শুভঙ্কর দাস(শুভ)।

অভিযোগ, ওই মহিলাকে নতুন জীবনের স্বপ্ন দেখিয়ে তার সঙ্গে বারংবার সহবাস করে শুভ। চলতি মাসের দুই তারিখ রাতে ওই মহিলার বাড়িতে শুভর যাওয়া নিয়ে এলাকাবাসীরা ঝামেলা করেন। এরপর  শুভ তাঁকে সিঁদুর পরিয়ে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়।

অভিযোগ, বিয়ে করতে যাওয়ার পথেই মাঝ রাস্তায় দুই সন্তানের সঙ্গে ওই মহিলাকে  দাঁড় করিয়ে রেখে চম্পট দেয় শুভ। এরপর মহিলা ফোনে তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। ফোনে হুমকি দিলেও ওই মহিলার কাছে আর আসেননি শুভ।

বারংবার এবিষয়ে মগরা থানায় অভিযোগ জানালেও কোন কাজ না হওয়ায় অবশেষে শনিবার চুঁচুড়া আদালতের দ্বারস্থ হন ওই মহিলা। বিচারের আশায় নির্যাতিতা মহিলা যতদূর পর্যন্ত সম্ভব যেতে রাজি বলে জানান।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ