নোয়াখালীর হাতিয়ায় নির্যাতনের ঘটনায় গ্রেফতার ৫

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:৩৯

নোয়াখালীর হাতিয়ার চানন্দী ইউনিয়নের আদর্শ গ্রামে অনৈতিক কাজের অপবাদ দিয়ে এক পল্লী চিকিৎসককে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় এজাহারভূক্ত ৫ আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর আগে এ ঘটনায় ১১ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়।

গ্রেফতারকৃত হলেন- হাতিয়া উপজেলার চানন্দি ইউনিয়নের আদর্শ গ্রামের  জিহাদ (৩০), ফারুক (৩০), নবীর উদ্দিন প্রকাশ হোন্ডা নবীর (৩২), আলোমগীর হোসেন (৪০) ও  আবু তাহের (২৭)।

আজ সোমবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন এ বিষয়ে এক প্রেস ব্রিফিং এ জানান, রবিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়া নারীকে বিবস্ত্রের ঘটনায় প্রকাশিত সংবাদ সঠিক নয়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ ও নির্যাতনকারীদের সাথে কথা বলে। এ সময় তারা জানান, গত ১লা জানুয়ারি অনৈতিক কাজে লিপ্ত রয়েছে সন্দেহ করে স্থানীয় লোকজন এক নারী ও এক পল্লী চিকিৎসকে আটক করে। এ সময় পল্লী চিকিৎসক মহিউদ্দিন পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে পুণরায় আটক করে টেনে হিছড়ে কিছু উত্তেজিত জনতা নির্যাতন করে।

এ সময় এলাকার কিছু উৎশৃঙ্খল বখাটে যুবক অনৈতিক কাজের অপবাদ দিয়ে স্থানীয় ওই পল্লী চিকিৎসক ও একজন গৃহবধূকে মারধর করে। পরে তাদেরকে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধেও মারধর করে। এক পর্যায়ে নির্যাতনের ঘটনাটি তারা মোবাইলে ধারণ করে এবং তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেয়।

সংবাদ সম্মেলন পুলিশ সুপার আরও বলেন, এই ঘটনায় পল্লি চিকিৎসক মহিউদ্দিন রবিবার (১৭ জানুয়ারি) রাতে থানায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করলে পুলিশ পাঁচ আসামিকে গ্রেফতার করে।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ