বিজিবির সঙ্গে গোলাগুলিতে মাদক কারবারি নিহত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ জানুয়ারি ২০২১, ১২:৫৫

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশফাঁড়ী এলাকায় বিজিবির সঙ্গে ‘গোলাগুলিতে’ এক মিয়ানমারের নাগরিক নিহত হয়েছেন।

আজ শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) ভোর রাত পৌনে ৪টার দিকে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে ৫০ হাজার ইয়াবা, দেশে তৈরি একটি দুইনলা বন্দুক ও ৪ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত ব্যক্তির নাম  মো. আব্দুর রহিম (২৫)। তিনি কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১ এর ব্লক-এ/৭-এ বসবাসরত ওয়াদুল হকের ছেলে। বিজিবি বলছে, নিহত ব্যক্তি ইয়াবা কারবারি।

কক্সবাজারের ৩৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়খ আলী হায়দার আজাদ আহমেদ জানান, বাইশফাঁড়ী বিওপির সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে কতিপয় ইয়াবা ব্যবসায়ী বিপুল পরিমাণ ইয়াবা নিয়ে মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। এ সংবাদের ভিত্তিতে বাইশফাঁড়ী বিওপি’র দুইটি টহল দল অবস্থান গ্রহণ করে। ভোররাত পৌনে ৪টার দিকে ৮-১০ জনের ১টি দল পাহাড়ি এলাকা দিয়ে বাংলাদেশের দিকে আসতে দেখে তাদের চ্যালেঞ্জ করলে তারা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে টহল দলকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ শুরু করে। এসময় টহল দল তাদের জানমাল রক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে। একপর্যায়ে অজ্ঞাত ইয়াবা ব্যবসায়ীরা পাহাড়ি জঙ্গলের মধ্য দিয়ে মিয়ানমারের ভেতরে পালিয়ে যায়।

পরবর্তী সময় টহল দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তিকে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় এবং তার পাশ ইয়াবা সদৃশ বস্তু ও দেশিয় তৈরী দুইনলা বন্দুক পড়ে থাকতে দেখে। আহত ব্যক্তিকে উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার নাম ও ঠিকানা জানা যায়। এ ঘটনায় বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়েছে। তারা উখিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হতে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। এ ব্যাপারে আইনানুগ কার্যক্রমের প্রক্রিয়া চলছে।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ