কন্টিনেন্টালের স্বাদ পাবেন কলকাতার এ রেস্তরাঁগুলোতে

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৪৪

আপনি কি খাদ্যরসিক? কন্টিনেন্টাল-প্রেমী? নিত্য নতুন খাবারের স্বাদ নিতে ভালোবাসেন? নিশ্চয় শহরের বুকে নতুন খাবারের সন্ধানে ঘুরছেন! তা হলে জেনে নিন কোথায় যাবেন? কোথায় গেলে কী রকম খাবার পাবেন, দাম কত? 

নতুন মেনু
এশিয়ান গ্যাস্ট্রোবার ‘দ্য ফ্যাটি বাও’ নিয়ে এল নতুন ককটেল ও খাবারের মেনু। নব সংযোজনে রয়েছে বেবি স্পিনাচ অ্যান্ড ফেটা ডিমসাম, বাটারফ্লাই পি টি এসেন্স ডিমসাম, ক্রিমচিজ শিটাকে মাশরুম ডিমসাম, ফিশ অ্যান্ড স্পিনাচ রোল উইথ ব্ল্যাক বিন সস, লবস্টার ক্র‌্যাব মিট অ্যান্ড টোবিকো ডিমসাম, গ্রিল্ড অ্যাসপারাগাস অ্যান্ড মাশরুম স্যালাড, রোস্টেড হাফ ডাক ও অন্যান্য পদ। ককটেল মেনুতে থাকছে ফ্রেশ চিলি অ্যান্ড বেসিল কসমোপলিটন, স্মোকি ওল্ড ফ্যাশনড টি, ডিল অ্যান্ড কিউকাম্বার মার্গারিটা, হিবিসকাস টি সাংগ্রিয়া, ফ্যাটি গ্রেন ও অন্যান্য চমক। অ্যালকোহল-সহ দু’জনের খাওয়ার খরচ ২,০০০ টাকা। কর অতিরিক্ত। প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত খোলা রেস্তোরাঁ।

সিনফুল
চকোলেটপ্রেমীদের জন্য আইটিসি লিমিটেডের ‘ফ্যাবেল’ নিয়ে এল নতুন রুবি চকোলেট বার অ্যান্ড চকো ডেক মিল্ক বার। চকোলেটে ব্যবহার করা হয়েছে উন্নত মানের মিল্ক চকোলেট, রুবি চকোলেট সঙ্গে রয়েছে আমন্ড। মিল্ক চকোলেটের মসৃণতা, রুবি চকোলেটের ফ্রুটি স্বাদ ও আমন্ডের ক্রাঞ্চ এলিমেন্ট একসঙ্গে এই চকোলেটকে দিয়েছে অন্য মাত্রা। ৫৫ ও ১২১ গ্রাম এই দুটি সাইজে চকোলেট পাওয়া যাচ্ছে দাম যথাক্রমে ৮৫ ও ২০০ টাকা।

নতুন অধ্যায়
মিক্স বার অ্যান্ড কিচেনের ‘ওভার দ্য টপ’-এর নাম অনেকের কাছেই পরিচিত। একই জায়গায় ভোলবদল হয়ে খুলে গেল নতুন রুফটপ লাউঞ্জ ‘হ্যামার’। রিট্র‌্যাকটেবল গ্লাস রুফ দিয়ে ঘেরা লাউঞ্জে বসে উপভোগ করুন শহরের মন ভালো করা ভিউ। রাস্টিক কাঠের আসবাবপত্র, সঙ্গে রুচিসম্মত আলোর ব্যবহারে সন্ধেবেলায় লাউঞ্জ হয়ে ওঠে আরও মোহময়। এখানকার খাবারের তালিকা কিউরেট করেছেন সেলিব্রিটি শেফ শন কেনওয়ার্দি।

গ্লোবাল কুইজিন, ফিউশন ফ্লেভার ও তাজা উপকরণের মিলেমিশে তৈরি মাস্ট ট্রাই লিস্টে রয়েছে যুগলবন্দি কাবাব, ইং ইয়াং গ্রিল্ড ফিশ উইথ রাইস কেক, কুংপাও র‌্যামেন বোল, স্পেশাল হ্যামার স্টাফড পনির টিক্কার মতো পদ। শেষপাতেও রয়েছে বিশেষ চমক, চেখে দেখুন এখানকার গুলাবজামুন চিজকেক ও ওরিও মুজ ডোম। এখানকার বার মেনুর ককটেল সেকশনও সমান ইন্টারেস্টিং। এখানেই শেষ নয়, ওয়েট ওয়াচারদের কথা মাথায় রেখে রয়েছে ‘দ্য ডায়েট জোন’, যার তালিকায় রয়েছে স্যালাড অফ কিনোয়া, টোম্যাটো, ফেটা চিজ সেলেরি কিউকাম্বার, পার্সলে ইন ভিনাটগ্রেট ড্রেসিং, গ্লুটেন ফ্রি পাস্তা, চিকেন অ্যান্ড ভেজ স্ট্যু উইথ ব্রাউন রাইস, গ্রিল্ড ম্যারিনেটেড ফিশ উইথ হার্ব কুসকুস হট সালসার মতো পদ। প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত খোলা রেস্তোরাঁ। শুক্র ও শনিবার রাত ১ টা পর্যন্ত খোলা লাউঞ্জ। দুজনের খাওয়ার খরচ অ্যালকোহলসহ ১ হাজার ৫০০ টাকা। কর অতিরিক্ত।
তথ্যসূত্র :  সংবাদ প্রতিদিন

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ