স্বাধীনতা বিরোধীরাই জ্বালাও পোড়াও শুরু করেছে: রেলমন্ত্রী 

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫৩

রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, 'স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি সংগঠিত হয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে জ্বালাও পোড়াও শুরু করেছে। দেশ স্বাধীনের মাত্র তিন বছর পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে হত্যা করা হয়।’ 

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জামালপুর রেলওয়ে স্টেশনের যাত্রীসুবিধা বৃদ্ধির জন্য প্ল্যাটফর্ম উচুঁকরণ, স্টেশন বিল্ডিং রিনোভেশন, এক্সেস কন্ট্রোল এবং প্ল্যাটফর্ম শেড নির্মাণ কাজের উদ্বোধন উপলক্ষে পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

মন্ত্রী বলেন, ‘এক সাগর রক্তের বিনিময়ে যে সংবিধান আমরা পেয়েছিলাম তা পদদলিত করে বিএনপি-জামায়াত এবং স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি হাজার হাজার বাড়িঘর, গ্রাম জ্বালিয়ে দিয়েছিল, মানুষ হত্যা করেছিল সেই একই শক্তি আবার নতুন করে একই রকম কাজে লিপ্ত হচ্ছে। তারা পবিত্র ধর্ম ইসলামকে ব্যবহার করে একটি অজুহাত তুলে নিরীহ মানুষের বাড়িঘরে হামলা করে বাড়িঘর জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দিচ্ছে।’ 

এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন, ‘ভারত, মিয়ানমার ইতোমধ্যে ডুয়েল গেজ লাইনের পরিবর্তে ব্রডগেজে রূপান্তর করেছে। তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য এবং ট্রান্স এশিয়ার সঙ্গে রেলের মাধ্যমে আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশ যেন যুক্ত হতে পারে সেজন্য আমাদের রেল ব্যবস্থাকে এককেন্দ্রিক করার জন্য পরিকল্পনা নিয়েছি। তাই সব মিটার গেজ লাইনকে ব্রডগেজ লাইনে রূপান্তর করা হবে।’ 

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘ইতোমধ্যে ৫৫টি স্টেশনের উন্নয়নের কাজ শুরু হয়েছে। ট্রেনে উঠা নামায় মানুষের ভোগান্তি কমাতে ট্রেনের পাটাতনের সমান করে প্ল্যাটফর্ম উঁচু করা হচ্ছে। অহেতুক কোনো মানুষ যেন স্টেশনে প্রবেশ করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য স্টেশনগুলোতে একসেস কন্ট্রোল চালু করা হবে। এতে বিনা টিকিটে কেউ স্টেশনে প্রবেশ করতে পারবে না।’ 

মন্ত্রী বলেন, ‘জয়দেবপুর থেকে জামালপুর হয়ে দেওয়ানগঞ্জ পর্যন্ত ডাবল লাইন হবে। ইতোমধ্যে ডুয়েল লাইনে উত্তীর্ণ করার কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। অল্পদিনের মধ্যেই এ কাজ শুরু হবে।’ 

বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক ডি এন মজুমদারের সভাপতিত্বে পথসভায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল, জামালপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ চৌধুরী বক্তব্য দেন। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মুর্শেদা জামান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন আহাম্মেদ, পৌরসভার মেয়র ছানোয়ার হোসেন ছানু প্রমুখ। 

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
ksrm