দেশের গণতন্ত্র আজ বন্দী ও নির্বাসিত: দুদু

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ আগস্ট ২০১৯, ২০:৪২

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের আহ্বায়ক  ও  বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, দেশের গণতন্ত্র আজ বন্দী ও নির্বাসিত। আইনের শাসন নেই, এ অবস্থায় লড়াই করেই মুক্তি আনতে হবে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে কৃষক দল আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

দেশের কৃষকদের সুদসহ কৃষিঋণ মওকুফের দাবিতে আয়োজিত কৃষক দলের এ মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আওয়াল মিন্টু, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আওয়াল খান, কৃষক দলের সদস্য সচিব হাসান জাফরিন তুহিন, সদস্য এস কে সাদি, মাইনুল ইসলাম মিয়া, মো: আনোয়ার, নাসির হাজারি, কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ
 
দরিদ্র কৃষকদের কৃষিঝণ সুদসহ মওকুফের দাবি জানিয়ে শামসুজ্জামান দুদু বলেন- গত একমাসে পুঁজিবাজার থেকে ২৭ হাজার কোটি টাকা লুট হয়েছে, তাতে কোন মামলা হয়নি।  

দুদু বলেন, দেশের গরিব কৃষক যে আজ বন্যা কবলিত, বন্যার পানিতে তাদের বাড়ি ভেসে গেছে, খাবার নেই, বাড়ি-ঘর ছেড়ে রাস্তায় আশ্রয় নিতে হয়েছে, হালের গরুটাও বন্যায় ভেসে গেছে। তারপরও মাত্র পাঁচ হাজার টাকার জন্য ক্ষতিগ্রস্ত দরিদ্র কৃষকে বেঁধে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। 

তিনি আরও বলেন, ভাল কাজ করতে হলে বেগম খালেদা জিয়ার কাছ থেকে শিক্ষা নিন। বেগম জিয়া তার সময়ে হাজার হাজার কোটি টাকা কৃষি ঋণ মওকুফ করেছিলেন। বন্যা কবলিত হলে প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া সেখানে ছুটে যেতেন। কৃষকদের প্রণোদনা দিয়েছেন, আর্থিক সহায়তা করেছেন।

দুদু প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘আজকে আমাদের প্রধানমন্ত্রী কোথায়? তিনি যে কোথায় আছেন এটাই দেশবাসী জানে না। তিনি কি অবস্থায় আছেন এটা আমরা বলতে পারি না। তার কথা সরকারও বলে না, তার কথা ডাক্তারও বলেন না, পুলিশও বলে না, তিনি কোথাযয় আছেন? ভালো না মন্দ কিভাবে আছেন? তা আমরা জানিনা।’

বিএনপি'র এই ভাইস চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘আপনি প্রধানমন্ত্রী বিদেশে গেছেন চিকিৎসা নিতে, এই কৃষকদেরকে কে দেখবে? আপনি ওয়াদা করেছিলেন যদি ক্ষমতায় আসেন সারের দাম কমাবেন, দশ টাকা সের চাল খাওয়াবেন। কিন্তু তা কি হয়েছে? 

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আপনি রাষ্ট্রীয় টাকায় চিকিৎসা করাচ্ছেন এটা আমরা শুনতে পাই। তাহলে সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রীকে চিকিৎসা নিতে দিচ্ছেন না কেন? মানুষ কি আপনি একাই? 

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ