স্বাধীনতাবিরোধীদের উত্তরসূরিদের সঙ্গে কোনো আপস নয় : কাদের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৩:১৬

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তির কারণে স্বাধীনতাকে এখনো সুসংহত করা যায়নি। স্বাধীনতাবিরোধীদের উত্তরসূরিদের সঙ্গে কোনো আপস নেই। দলে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে কেউ থাকলে আগামী সম্মেলনের মাধ্যমে তাদের বের করে দেয় হবে।

বিজয় দিবস উপলক্ষে আজ সোমবার ভোরে মহান সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানানোর পর তিনি এ কথা  বলেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, মুক্তিযুদ্ধের পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সেই দোসর, তাদের প্রেতাত্মারা আজও বাংলার মাটিতে বিজয়কে সুসংহত করার পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দলে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে কেউ থাকলে আগামী সম্মেলনের মাধ্যমে তাদের ‘বের করে দেওয়া হবে’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘বাংলার জমিনে এই অপশক্তিকে ওঠে দাঁড়াতে দেওয়া হবে না, বিজয় দিবসে এটিই আমাদের শপথ।’

এ সময় বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে অর্জিত স্বাধীনতা তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আরও সুসংহত হয়েছে বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

স্মৃতিসৌধে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের পর জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেন, বাংলাদেশ এখনো নিরাপদ হয়নি। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর আগে বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে সম্পূর্ণরূপে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য আর রাজাকার সমর্থিত সরকার ক্ষমতায় আসবে না, সে বিষয়ে নিশ্চিৎ হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘একাত্তরের যে লক্ষ্য ও চেতনা ছিল, সে লক্ষ্য অনুযায়ী আমরা সম্পূর্ণভাবে এগোতে পারিনি। আমরা আরও এগোতে পারতাম, যদি পঁচাত্তরে রাজনৈতিক বিপর্যয় না হত, সামরিক শাসন না থাকত। আর যাতে আমরা হোঁচট না খাই, তার গ্যারান্টি অর্জন করাটাই এ মুহূর্তের গুরুতœপূর্ণ রাজনৈতিক কর্তব্য।’

সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, রাজাকারের তালিকাটি এখনো তার ‘পরীক্ষা’ করে দেখা হয়নি। ‘পরীক্ষা নিরীক্ষা’ করে তবেই তিনি মন্তব্য করবেন।

জি এম কাদের বলেন, ‘আমাদের প্রত্যাশা দেশ শান্তির দিকে এগিয়ে যাবে। বেকারত্বমুক্ত দেশ হবে। দুর্নীতিমুক্ত দেশ হবে। এ দেশ গড়ার লক্ষ্যে আমরা সম্মিলিতভাবে কাজ করব।’

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ