খালেদার বাসভবনে স্বজনসহ দলীয় নেতাদের প্রবেশে বিধি-নিষেধ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ মার্চ ২০২০, ১৭:৪১

ছয়মাসের সাজা স্থগিতের পর গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় চলছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার হোম কোয়ারেন্টিন। এ সময় ফিরোজার বাসভবনেই চলবে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের স্ত্রী জোবায়দা রহমানের তত্ত্বাবধানে ছয় সদস্যের বোর্ডের অধীনে চলবে চিকিৎসা।

২৫শে মার্চ থেকে ছয় মাসের সাজা স্থগিত কার্যকর হলে দুর্নীতির দায়ে প্রায় পঁচিশ মাসের বন্দিদশা থেকে মুক্তি পান বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। সেদিন রাতেই বিএনপি চেয়ারপারসনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা জানান, দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শুক্রবার খালেদা জিয়ার বাস ভবন ফিরোজার সামনে ছিলো শুনশান নীরবতা। 

সিএসএফ নিরাপত্তা কর্মকর্তা নুরুন্নবী বলেন, এখানে নেতাকর্মীদের আসা নিষেধ। বাইরের কেউই এখানে ঢুকতে পারবে না। সিনিয়র নেতারাও এখানে আসতে পারবে না। আমাদের চলাফেরার উপরও বিধিনিষেধ আছে।

হোমকোয়ারেন্টিনের সময় বাসভবনে স্বজনসহ দলের শীর্ষ নেতাদের প্রবেশাধিকার সংরক্ষিত থাকবে বলে জানান, খালেদা জিয়ার বোন সেলিমা ইসলাম। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া মানসিকভাবে অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠছেন। বাসার সবার সাথেই কথা বলছেন। তবে শারীরিকভাবে খুবই অসুস্থ তিনি, হাসপাতালে নেয়ার মত অবস্থায় নেই। পরিবারের দুই একজন ছাড়া আর কেউই তার সাথে দেখা করতে পারবে না।

খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসায় তারেক রহমানের স্ত্রী জোবায়দা রহমানের তত্ত্বাবধানে গঠিত চিকিৎসক বোর্ড প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও দলের ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন। তিনি বলেন, উনার যেসব পরীক্ষা নিরীক্ষা করা দরকার সেগুলোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। কোয়ারেন্টিন পর্ব শেষ হলেই আমরা সেসব পরীক্ষার উদ্যোগ নিব। এই মুহুর্তে উনার জন্য চিকিৎসার সর্বোচ্চটাই করা হবে।

উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে পারলে কিছুটা সময় লাগলেও, খালেদা জিয়া সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে আশার কথা জানান তিনি।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ