শ্রমিক ছাঁটাই করা যাবে না: মান্না

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ জুন ২০২০, ১৯:৩৪

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হকের শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘোষণায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

তিনি বলেছেন, শ্রমিক ছাঁটাইয়ের পক্ষে তার যুক্তি উপস্থাপন বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছে। বছরের পর বছর ধরে যে শ্রমিকদের শ্রমকে পুঁজি করে পোশাক শিল্প বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম স্তম্ভ হিসেবে দাঁড়িয়ে আছে, আকালের দিনে তাদের কর্মহীন করে ফেলা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।

শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো নাগরিক ঐক্যের সদস্য সাকিব আনোয়ার স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন। তবে বিবৃতিতে পোশাক শ্রমিকদের করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করায় রুবানা হককে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মান্না।

মান্না বলেন, বাংলাদেশের পোশাক খাতের কাঁচামাল প্রধানত আমদানি নির্ভর। অর্থাৎ আমরা পোশাক শিল্প থেকে যা আয় করি তা শুধু পোশাক শ্রমিকদের শ্রমের মূল্য। কিছু অর্ডার বাতিল হয়েছে, সেই বাতিল অর্ডারের কিছু আবার ফিরে এসেছে, হয়তো সামনে আরও অর্ডার ফিরবে। ২০২০ সালে পোশাক শিল্পে আয়ের পরিমাণ ২ হাজার ৩০০ কোটি ডলার। এর মধ্যে ৩১০ কোটি ডলারের ক্রয়াদেশ বাতিল হয়েছিল, যার ২৬ শতাংশ এখন পর্যন্ত ফিরেছে।

তিনি বলেন, এত বছর ধরে যে শ্রমিকদের শ্রম বিক্রি করে বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতি অগ্রসর হয়েছে এবং মালিকেরা ধনী থেকে ধনকুবের হয়েছেন, সেই শ্রমিকদের এই মহামারির সময়ে ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দেওয়ার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি ও নিন্দা জ্ঞাপন করছি।

মান্না বলেন, সরকারের সঙ্গে বসে পোশাক শ্রমিকদের বিষয়ে গঠনমূলক সিদ্ধান্ত নিতে হবে বিজিএমইএ-কে। কোনোভাবেই তাদের ছাঁটাই করা যাবে না এবং প্রত্যেক শ্রমিকের বকেয়া, বেতন জুন মাসের মধ্যে পরিশোধ করতে হবে। যারা ইতোমধ্যে চাকরি হারিয়েছেন, তাদের শ্রম আইন অনুযায়ী বেতন বা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে এবং অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের চাকরি ফিরিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা নিতে হবে।

নিজের তোলা দাবির বিষয়ে পোশাক কারখানা মালিকদের সহযোগিতা করার জন্য সরকারকে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মান্না। অন্যথায় পোশাক খাতের এই অস্থিরতা যে পরিস্থিতি তৈরি করবে তা সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন মান্না।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ