টিকাদানের মাধ্যমে দেশ করোনামুক্ত হবে: প্রধানমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৩৯ | আপডেট : ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ২১:৫৬

করোনার এই ভ্যাকসিনের মাধ্যমে দেশবাসী করোনামুক্ত হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বুধবার (২৭ জানুয়ারি) কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদান কর্মসূচির উদ্ধোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি এ প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন তিনি।

তিনি বলেন, সারা বাংলাদেশেই পর্যায়ক্রমে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। করোনার এই ভ্যাকসিনের মাধ্যমে দেশবাসী করোনামুক্ত হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সব জায়গায় চিঠি দিয়ে রেখেছিলাম। যাতে করে আগে ভ্যাকসিন পাই। আমরা চেষ্টা করেছি, যার ভ্যাকসিন আগে হবে সেটাই পেতে। এর মধ্যে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন আপনারা জানেন দেশে এসেছে। এখন আমরা প্রয়োগ করতে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমি সব সময় ভ্যাকসিন পাওয়ার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েছি। এক হাজার কোটি টাকা আলাদা করে রেখেছিলাম। কারণ দেশের মানুষকে আমি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেই।

টিকাদান কর্মসূচির সমালোচনাকারীদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, টিকাদান কর্মসূচি শুরুর আগে এটা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। আপনারা জানেন আমাদের দেশে কিছু মানুষ আছে যারা সবকিছু নিয়ে নেতিবাচক কথা বলে। টিকাদান কর্মসূচি নিয়েও তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা করছেন। সবকিছু নিয়ে সমালোচনা করা তাদের রোগ। জানি না এই রোগের কোন ভ্যাকসিন আছে কি না।

প্রধানমন্ত্রী জানান, তিন কোটি ৪০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে। এরপর এগুলো সময়মতোই আসতে থাকবে। কোনো সমস্যা হবে না।

তিনি বলেন, এটা ঐতিহাসিক দিন। কেননা, অনেক দেশ এখনো ভ্যাকসিন পায়নি। সেখানে অর্থনৈতিক সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও বাংলাদেশে ভ্যাকসিন আমদানি করেছে সরকার।

বুধবার নার্স বেরোনিকা কস্তার দেহে ভ্যাকসিন প্রয়োগের মাধ্যমে টিকাদান শুরু করা হয়। পরে এক পুলিশ সদস্য, সেনাসদস্যকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ