জয় দিয়ে শুরু শেখ জামালের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:২২

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতিকে ১১ রানে হারিয়ে প্রথম জয় তুলে নিয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। শেখ জামালের হয়ে বল হাতে ৩৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন শহিদুল ইসলাম।

শেখ জামালের দেওয়া ১৭০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুটা বেশ ভালোই করেছিলো খেলাঘরের দুই ওপেনার রবিউল ইসলাম রবি ও সাদিকুর রহমান। শুরু থেকেই লক্ষ্যে পৌঁছাতে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেন রবিউল রবি। দুইজনের জুটি ভাঙে দলীয় ৪১ রানে। ১৬ বলে ২১ রান করে আউট হন সাদিকুর। তার বিদায়ে রবিউলের সঙ্গে জুটি বাঁধেন খেলাঘরের অধিনায়ক মাহিদুল।

এরই মধ্যে ফিফটি হাঁকান রবিউল। দুইজনের ৭৪ রানের জুটি ভাঙেন ইলিয়াস সানি। ৫১ বলে ৬৯ রান করা রবিউলকে আউট করেন সানি। তার একটু পরে বিদায় নেন মাহিদুলও। তারপর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি খেলাঘর। শেষদিকে ৮ বলে ১৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন মাসুম। শেখ জামালের বল হাতে একাই চারটি উইকেট নেন শহিদুল।
 
এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শেখ জামালকে উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়েছেন দুই ওপেনার ইমতিয়াজ হোসেন ও ফারদিন হাসান। দুই ওপেনার মিলে স্কোরবোর্ডে যোগ করেছেন ৩৮ রান। ১৯ বলে ২১ রান করে আউট হয়েছেন ফারদিন। প্রথম উইকেটের পতনের পর হাসানুজ্জামান ও ইমতিয়াজ মিলে দলকে বড় সংগ্রহের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন।

দলীয় ৭৮ রানে ব্যক্তিগত ২৬ রান করে আউট হন হাসানুজ্জামান। তার একটু পরেই আউট হন ৩১ রান করা ইমতিয়াজ। ৮১ রানে তিন উইকেট পড়লে সেখান থেকে দলীয় স্কোর বড় করেন নুরুল হাসান সোহান ও নাসির হোসেন। দুইজনেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেন। বিপিএল টি-টোয়েন্টি বেশি ম্যাচ সুযোগ না পাওয়া নাসির যেন এই ম্যাচে টি-টোয়েন্টিতে নিজেকে প্রমাণের চেষ্টা করেন।

দুইজন মিলে গড়েন ৬৫ রানের জুটি। ২৭ বলে ৩৪ রান করে আউট হন নাসির হোসেন। তার ইনিংসে ছিল ১টি চার ও ২টি ছয়। নাসির বিদায় নিলেও শেষের দিকে দলীয় স্কোর বড় করার চেষ্টা করেন নুরুল। তবে তার ইনিংস থামে দলীয় ১৬১ রানে। ১৯তম ওভারের প্রথম বলে রবিউল হকের বলে আউট হন নুরুল। ২৮ বলে ৪৩ রানের ইনিংস খেলেন নুরুল। ইনিংসে ছিল ১টি চার ও ৩টি ছয়। দুইজনের জুটিতে দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৬৯ রান।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ