সবাইকে বিকাল ৫টায় একযোগে দোয়ার আহ্বান মুশফিকের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৫ মার্চ ২০২০, ০৯:৫৮

করোনা ভাইরাসে প্রথমবারের মতো মৃত্যুর মিছিলে যোগ দিয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৩৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্তের পাশাপাশি প্রাণ গেছে ছয়জনের। তাছাড়া ইউরোপ- বিশেষ করে স্পেন ও ইতালিতে মৃতের সংখ্যা বাড়ছে অস্বাভাবিক হারে। এমতাবস্থায় করোনার বিপক্ষে লড়াই করার জন্য নিজ নিজ স্থান থেকে সচেতন থাকার পাশাপাশি, মহান সৃষ্টিকর্তার সাহায্য চেয়ে দোয়া প্রার্থনার কথা  বলেছেন জাতীয় ক্রিকেট দলের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম।

শুধু সারাদেশ নয়, সারাবিশ্বের মানুষই এসময়ে নামাজের পর দোয়া করবে বলে জানান মুশফিক। তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের অনুসারীদেরকেও এ সময়ে দোয়াপ্রার্থনার অনুরোধ জানিয়েছেন মুশফিক। এ সময়ের প্রার্থনার জন্য তিনটি দোয়াও উল্লেখ করে দিয়েছেন তিনি।

নিজের ছেলে শাহরুজ রহীম মায়ানের সঙ্গে নামাজরত একটি ছবি সম্বলিত পোস্টে মুশফিক লিখেছেন, আসসালামু আলাইকুম। আজ (বুধবার) বাংলাদেশ সময় ঠিক বিকাল ৫টায় কোভিড-১৯ ভাইরাস থেকে সকলকে নিরাপদ রাখার জন্য সারা বিশ্বের সকল মুসলিমরা নামাজের পর দোয়া পড়বে। পাকিস্তানে বিকাল ৪টায়, আরব আমিরাত, বাকু এবং ওমানে দুপুর ৩টায়, সৌদি এবং কাতারে দুপুর ২টায়, কানাডায় সকাল ৭টায়, অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে রাত ১০টায় এবং বিশ্বের অন্যান্য জায়গায় এ সময় অনুযায়ী। এর জন্য নির্দিষ্ট কোনো স্থান নেই। আপনি যেখানেই থাকুন, দয়া করে নিম্নোক্ত দোয়াগুলো পড়ুন। কারণ সারা বিশ্বের সকল মুসলিমরা পড়বে। একশবার হাসবুনআল্লাহু ওয়ানাইমাল ওয়াকিল একশবার লা ইলাহা ইল্লা আনতা সুবহানাকা ইন্নি কুন্তু মিনাজ্জালেমিন এবং একশবার যে কোনো দুরূদ শরীফ।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) বুধবার (২৫ মার্চ) সকাল পর্যন্ত এক দিনে ২ হাজার ৩৬৮ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এতে মোট মৃতের সংখ্যা ১৮ হাজার ৮৯২ জনে পৌঁছেছে। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ লাখ ৮ হাজার ৮৭৯ জন।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, উৎপত্তিস্থল চীন ছাড়াও বিশ্বের মোট ১৯৭টি দেশে মরণঘাতী ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছে। তাছাড়া ঝুঁকিতে আছে আরও অনেক দেশ। এতে বিশ্বজুড়ে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ২২ হাজার ছাড়িয়েছে। যাদের মধ্যে ইতালি, ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিকদের সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি। এমন অবস্থায় বিশ্বজুড়ে সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ