প্রতিষ্ঠাতাদ্বয়ের পদত্যাগ

গুগলের পর অ্যালফাবেটের দায়িত্বেও সুন্দর পিচাই

  টেক ক্রাঞ্চ

০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৪৫ | আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৫২ | অনলাইন সংস্করণ

গুগলের মূল প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট থেকে পদত্যাগ করেছেন গুগলের দুই সহ-প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেইজ ও সার্গেই ব্রিন।সার্গেই ব্রিন অ্যালফাবেটের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। ল্যারি পেইজ ছিলেন সিইও হিসেবে। এখন তাদের অবর্তমানে অ্যালফাবেটকে সিইও হিসেবে নেতৃত্ব দেবেন গুগল প্রধান সুন্দর পিচাই। তবে ল্যারি পেইজ ও সার্গেই ব্রিন অ্যালফাবেটের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাবেন।

ল্যারি পেইজ ও সার্গেই ব্রিন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, অ্যালফাবেট ও গুগলের জন্য আলাদা দুই সিইও ও প্রেসিডেন্টের প্রয়োজন নেই। অ্যালফাবেট ও গুগলকে সিইও হিসেবে নেতৃত্ব দেবেন সুন্দর পিচাই। অ্যালফাবেট, গুগল ও গুগলের অধীনস্থ কোম্পানিগুলো স্বাধীনভাবে সাফল্যের সঙ্গেই চলতে পারছে। স্বাভাবিকভাবেই এখন আমাদের ম্যানেজমেন্টকে আরও সহজ করার সময় এসেছে।

এ বিষয়ে সুন্দর পিচাই কর্মীদের উদ্দেশে লিখেছেন, দুই সহ-প্রতিষ্ঠাতার পদত্যাগের সিদ্ধান্ত গুগলের দৈনন্দিন কাজের উপর প্রভাব ফেলবে না। গুগলের প্রতি আমার মনোযোগ আগের মতোই থাকবে। একই সঙ্গে অ্যালফাবেট নিয়ে কাজ করতেও আমি উন্মুখ হয়ে আছি।

এছাড়াও, নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করে গুগলের লক্ষ্য, আদর্শ, ঐতিহ্য ও উদ্ভাবনী শক্তির জন্য ল্যারি পেইজ ও সার্গেই ব্রিনকে ধন্যবাদ জানান সুন্দর পিচাই।

আজ থেকে প্রায় ২০ বছর আগে গুগল প্রতিষ্ঠা করেন ল্যারি পেইজ ও সার্গেই ব্রিন। সে সময় তারা স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী ছিলেন। তাদের হাত ধরেই বেড়ে ওঠে ট্রিলিয়ন ডলারের গুগল-অ্যালফাবেট সাম্রাজ্য। ২০১৫ সালের ২ অক্টোবর গুগলের মালিকানাধীন বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান যেমন স্বয়ংক্রিয় গাড়ি তৈরির কোম্পানি ওয়াইমো, লাইফ সায়েন্স নিয়ে গবেষণা চালানো প্রতিষ্ঠান ভ্যারিলি, বায়োটেক কোম্পানি ক্যালিকো ও উদ্ভাবনী গবেষণাগার সাইড ওয়াক ল্যাবস ও বেলুনের মাধ্যমে প্রত্যন্ত অঞ্চলে ইন্টারনেট পৌঁছানোর প্রতিষ্ঠান মিলে প্রতিষ্ঠিত হয় অ্যালফাবেট।সে সময় থেকেই জনসম্মুখে আসা প্রায় বন্ধ করে দেন ল্যারি পেইজ ও সার্গেই ব্রিন। বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে বৈঠক, গুগল আইও ডেভেলপার কনফারেন্স কিংবা পণ্য উন্মোচনের অনুষ্ঠান কোথাও তারা অংশ নিতেন না।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ