তাড়াইলে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির অনিয়মের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১১:৪৩

কিশোরগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির গ্রাহক তাড়াইল উপজেলার তাড়াইল -সাচাইল সদর ইউনিয়নের সাররং গ্রামের মৃত তাহের উদ্দিন খানের ছেলে মো. আব্দুল মতিন খান কিশোরগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিকার চেয়ে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ শে জানুয়ারি  বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে কিশোরগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার ও তাড়াইল সাব-জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার কে প্রতিপক্ষ করে মামলা দায়ের করেন । প্রার্থী মামলার আর্জিতে দাবী করেন যে, উনার ছেলে একটি প্রতিবন্ধী স্কুলের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বে রয়েছেন। সেই সুবাদে স্কুলের নামে একটি বিদ্যুৎ সংযোগ নেওয়ার বিষয়ে পরামর্শ করার জন্য তাড়াইল সাব-জোনাল অফিসে যান। সেখানে কর্তব্যরত ডি,জি, এম তার কাছে বিদ্যুৎ সংযোগ এর জন্য পঞ্চাশ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। ঘুষ দিতে অস্বীকার করায়, তাড়াইল সাব-জোনাল অফিসের জনৈক কর্মকর্তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে লাখ টাকা বিদ্যুৎ বিল করার হুমকি দেয়। তার কিছুদিন পরেই প্রার্থীর নামে ২০২১ সালের ডিসেম্বর মাসে ৬৭৪০৮ টাকা বিদ্যুৎ বিল আসে।উনি এই বিষয়ে কিশোরগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির দ্বারস্থ হওয়ার পরেও কোন প্রতিকার না পেয়ে  তিনি বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে মামলা দায়ের করেন। তাছাড়াও তিনি মোকাদ্দমা চলাকালীন সময়ে যাহাতে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে না পারে এই মর্মে নিষেধাজ্ঞার দরখাস্ত দিয়েছেন।

ভুক্তভোগী আব্দুল মতিন খান বলেন, আমি অবসর প্রাপ্ত উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমি হার্ট, হাই প্রেসার, ডায়েবেটিস সহ বিভিন্ন রোগে ভোগছি। এই বিল আসার পরে আমি শারীরিক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ি।পল্লী বিদ্যুৎ এর বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। আমি কমিশনের কাছে বিচার চাই।

কিশোরগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এবিএন/মো. সুমন মিয়া/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ