‘স্যার আমি ওই ঘরে থাকতাম না আমার নামডা কাইট্টা দলিলডা রাইখা দেন’

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৫১

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর আওতায় ভূমিহীন ও গৃহহীন দের জন্য দুই শতক ভূমিসহ পাকের ঘর,টয়লেটসহ দুই কক্ষ বিশিষ্ট ঘর নির্মাণ করে দিয়েছে। এর মধ্যে উপকারভোগী আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দা রহিমা বেগম(৬৫) বলেন স্যার আমি ওই ঘরে থাকতাম না,আমার নামডা কাইট্টা দলিলডা রাইখা দেন।
কি কারনে থাকবেন না জানতে চাইলে  তিনি রহিমা বেগম বলেন আশেপাশে কোনো বাজার নেই,কাজের ব্যবস্থা নেই।

১৩ নম্বর ঘরের বাসিন্দা প্রতিবন্ধী  নুরুজ্জামান বলেন তিনি বলেন স্যার আমি ওখানে থাকবো না পারলে আমাকে আমার ইউনিয়নে দেন।
১৪ নম্বর ঘরের বাসিন্দা রানু আক্তার বলেন আমার স্বামী নাই,ঐখানে আমি থাকতে পারবো না কারন ওখানে কাজের ব্যবস্থা নেই। আমি কাজ না করতে পারলে ছেলে মেয়ে নিয়ে খামু কি?
শিউলি আক্তার বলেন পানি খাওয়া যায়না, পানি থেকে গন্ধ আসে।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে উপজেলা প্রশাসন কতৃক আয়োজিত উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির সভায় একথা বলেন উপকারভোগীরা।
সভার বিশেষ অতিথি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো.পারভেজ হোসেন সরকার উপকারভোগীদের অনুরোধ করে বলেন আপনারা থাকেন আপনাদের সকল সমস্যা আমরা সমাধান করে দিব।
সভার সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা( ইউএনও) এ.টি.এম.মোর্শেদ বলেন আপনাদের জন্য ইতি মধ্যে আমরা আত্মকর্মসংস্থান লক্ষে বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্যেগ গ্রহন করেছি। যেমন পাট,বেত ও বাঁশ দিয়ে  বিভিন্ন পণ্যসামগ্রী তৈরীর প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে।এছাড়াও হাঁস,মুরগী পালন ও সেলাই মেশিন প্রদান করা হবে। এবং ক্ষুদ্র ঋণের ব্যবস্থাও করা হবে।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) কে এম আবু নওশাদ,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফরিদা ইয়াসমিন, ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ ফকির, পুলিশ উপপরিদর্শক (এস আই)মধু সুদনসহ ইউপি চেয়ারম্যানগণ, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ ও উপকারভোগী ৫২ জন সদস্য।

 

এবিএন/কবির হোসেন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ