মানিকগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্র হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড 

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ২০:১৩

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার আটিগ্রাম ইউনিয়নের বার্তা গ্রামে মাদ্রাসা ছাত্র শরিফুল ইসলাম (১৯) কে হত্যার দায়ে সেলিম হোসেন নামের এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছে বিচারক। একই সঙ্গে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন আদালতের বিচারক।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেল পৌণে ৪ টার দিকে মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক উতপল ভট্টাচার্য্য আসামী সেলিম হোসেন ও নাজমা বেগমের উপস্থিতিতে এই রায় দেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরনে জানা যায়, ২০১০ সালের ১২ ডিসেম্বর বিকেলে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আসামীরা দাখিল পরীক্ষার্থী শরিফুল ইসলামকে ডেগার দিয়ে পার দিয়ে গুরুতরভাবে জখম করে। পরে আটিগ্রাম ইউনিয়নের মাদবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পশ্চিম পার্শ্ব থেকে স্থানীয়রা আহত শরিফুলকে উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। 

এই ঘটনায় সেলিমসহ মোট ১৩ জনকে আসামী করে শরিফুলের বড় ভাই শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলার তদন্তে ৯ আসামীকে অব্যাহতি দিয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন কর্মকর্তা। 

বাকী চার জন আসামীর মধ্যে রায়ের আগেই মারা যায় ২ নাম্বার আসামী রহিজ উদ্দিন। আর মামলার শুরু থেকেই পলাতক রয়েছে ৩ নাম্বার আসামী রাজু হোসেন। আদালতের বিচারক তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দেন। মামলার আরেক আসামী নাজমা বেগমের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস প্রদানের রায় দেন বিচারক। মামলায় মোট ১৯ জন সাক্ষীর মধ্যে ১১ জন সাক্ষী তাদের সাক্ষ্য প্রদান করেন। 

আসামীপক্ষে মামলা পরিচালনা করে অ্যাডভোকেট আব্দুল মজিদ ফটো ও অ্যাডভোকেট শহিদুল ইসলাম। আর রাষ্ট্র পক্ষে মামলা পরিচালনা করে এপিপি এ্যাডভোকেট মথুর নাথ সরকার। 

এবিএন/সো‌হেল রানা/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ