সাটু‌রিয়া উপজেলা প্রকৌশলী জানে না ব্রী‌জের তথ্য!

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৪ মার্চ ২০২২, ১৯:২১

মা‌নিকগঞ্জ জেলার সাটু‌রিয়া উপজেলার দিঘুলীয়া  ইউনিয়নের আঙ্গু‌টিয়া এলাকায় গ্রা‌মের ভিতর সড়ক দিয়ে চলার পথে চো‌খে পড়বে প্রায় দুই যুগ পূ‌র্বে নি‌র্মিত একটি ব্রীজ। নির্মা‌নের পর থে‌কেই অব্যহৃত অবস্থায় সংযোগ রাস্তা ছাড়াই দাঁড়িয়ে আছে ব্রীজ‌টি।
ত‌বে মজার বিষয় হ‌চ্ছে, সাটু‌রিয়া উপজেলা প্রকৌশলী নাজমুল করিম এ‌তো বছর ধ‌রে ব্রীজ‌টির অব্যহৃত অবস্থায় প‌রে থাক‌লেও ব্রীজ‌টি সম্প‌র্কে কোন তথ্য জা‌নে না। ব্রীজ সর্ম্পকে সংবা‌দিক‌দের দি‌তে পা‌রে নি কোন তথ্য।

জানা গে‌ছে, উপজেলার দিঘুলীয়া ইউনিয়নের বেং‌রোয়া থে‌কে আংগু‌টিয়া দি‌য়ে পুরশুরা যাওয়ার রাস্তার আংঙ্গু‌টিয়া এলাকায় খা‌লের উপর প্রায় দুই যুগ পূ‌র্বে নিমাণ করা হ‌য়ে‌ছিল ব্রীজ‌টি। যে খা‌লে নির্মাণ করা হ‌য়ে‌ছিল ব্রীজ‌টি সে খাল ভরাট হ‌য়ে এখন রাস্তা হি‌সে‌বে ব্যহৃত হ‌চ্ছে। ব্রী‌জের নিচ দি‌য়ে চলাচল ক‌রে মানুষ। ব্রীজ‌টি ব্যহৃত হচ্ছে স্থানীয়‌দের গরুর গোবর শুকা‌নোর কা‌জে।

ব্রীজ‌টি‌তে সাঁটানো কোন ফলক না থাকায় এ‌টির নির্মাণ সম্প‌কে বিস্তা‌রিত জানা যায়‌নি। আর ব্রীজ‌টি‌ সম্প‌র্কে খোজ নি‌তে সাটু‌রিয়া উপ‌জেলা প্রকৌশলীর দপ্ত‌রে একা‌ধিকবার যোগা‌যোগ কর‌লেও সাটু‌রিয়া উপজেলা প্রকৌশলী নাজমুল করিম এ বিষ‌য়ে কিছু জানা‌তে পা‌রে‌নি।

স‌রেজ‌মি‌নে জানা যায়, ব্রীজ‌টি নির্মাণ করা হলেও সড়কের অভাবে সেটি কাজে আসে না। এ‌তে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে গ্রামের লোকজন। দীর্ঘদিনের ব্রীজ‌টি ব্যবহারের উপযোগী না করায় তা ভেঙে ফেলার দাবি তুলেছে স্থানীয় বাসিন্দারা সেতু ভাঙার জন্য তারা কয়েক বছর আগে উপজেলা প্রশাসনের কাছে লিখিত আবেদন করেছিল এরপরেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

স্থানীয় ত‌মেজ উ‌দ্দিন মাস্টার ব‌লেন, ব্রীজ‌টি নির্মাণ করার পর দীর্ঘদিনেও সংযোগ রাস্তা না হওয়ায় এ‌টি অব্যহৃত অবস্থায় প‌রে আ‌ছে। ব্রীজ‌টির নিচ দি‌য়ে রাস্তা বা‌নি‌য়ে চলাচল করে স্থানীয়রা। ব্রীজ‌টির কার‌নে বড় গা‌ড়ি কিংবা ভ্যান ভ‌রে কোন কিছু রাস্তা দি‌য়ে নিয়ে যাওয়া যায় না। ব্রীজ‌টি ভে‌ঙ্গে ফেললে স্থানীয়‌দের চলাচ‌লে সু‌বিধা হ‌বে।

স্থানীয়‌ কলেজ ছাত্র সবুজ মিয়া জানায়, গ্রামের খালে বর্ষাকালে অন্তত চার মাসে পানি থাকে তখন শিক্ষার্থী ও গ্রামের লোকজন চলাচলের জন্য বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করে দেওয়া হয় ওই সাঁকোর উপর দিয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা চলাচল করতে পারে না।

পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল হালিম বলেন, তার আমলে তৎকালীন ইউপি চেয়ারম্যান খোকন চেয়ারম্যানের উদ্যোগে সেতুটি নির্মাণ করা হয়। রাস্তা না থাকায় এলাকাবাসী সেতু নির্মাণে বাধা দিয়েছিল বাধা উপেক্ষা করে সেখানে সেতু নির্মাণ করা হয়।

ব্রীজ‌টি সর্ম্পকে জা‌ন্তে সাটু‌রিয়া উপ‌জেলা প্রকৌশলীর দপ্ত‌রে একা‌ধিকবার যোগা‌যোগ করা হ‌লেও সাটু‌রিয়া উপ‌জেলা প্রকৌশলী মো: নাজমুল ক‌রিম ব্রীজ‌টির সর্ম্পকে কোন তথ্য দিতে পা‌রে নি।

গত সপ্তা‌হে ব্রীজ‌টি সর্ম্পকে জা‌ন্তে চাই‌লে তি‌নি ব‌লেন যে‌হেতু ব্রীজ‌টি অ‌নেক আ‌গের নি‌র্মিত। ব্রীজ‌টি আমা‌দের দপ্তর থে‌কে না‌কি অন্য কোন দপ্তর থে‌কে নির্মাণ করা হ‌য়ে‌ছে তা ন‌থি দেখ‌তে হ‌বে, তার পর ব্রীজ‌টির সম্প‌র্কে বলা যাবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) দুপু‌রে ব্রীজ‌টির বিষ‌য়ে তথ্য জা‌নতে চাই‌লে সাটু‌রিয়া উপ‌জেলা প্রকৌশলী মো: নাজমুল ক‌রিম জানায়, ব্রীজ‌টির সর্ম্পকে কোন তথ্য তা‌দের দপ্ত‌রে নেই। ব্রীজ‌টি অন্য কোন দপ্তর থে‌কে নির্মাণ করা হ‌য়ে‌ছে কি না জা‌ন্তে চাই‌লে তাও জানাতে পা‌রেনি সে।

এবিএন/মো: সো‌হেল রানা খান/জসিম/আব্দুর রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ