গোপালগঞ্জে আদালত থেকে বাড়ি ফেরার পথে ছাত্রলীগ নেতার ওপর হামলা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩০ এপ্রিল ২০২২, ১০:১৭

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মাসুমের (২৯) ওপর হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করেছে একদল সন্ত্রাসী। 

গত বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিকালে গোপালগঞ্জ আদালত থেকে মামলার হাজিরা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে সদর উপজেলার হরিদাসপুর বিসিক এলাকায় এ বর্বরোচিত হামলার ঘটনা ঘটে।

এ সময় বেধড়ক মারপিটে তিনি অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটে পড়েন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। 

এ ঘটনায় গোপালগঞ্জ জেলা ও কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

গত শুক্রবার (২৯) সন্ধ্যায় ছাত্রলীগ নেতা শেখ মাসুম বাদী হয়ে গোপালগঞ্জ সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

আহত শেখ মাসুম জানান, তিনি একটি মামলার হাজিরা দিতে গোপালগঞ্জ আদালতে গিয়েছিলেন। হাজিরা শেষে বাসে করে গ্রামের বাড়ি কাশিয়ানীর সরাইকান্দি গ্রামে ফিরতেছিলেন। হরিদাসপুর সম্প্রসারিত বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় পৌঁছালে ওই এলাকার ইনছান মুন্সী, সাদ্দাম মুন্সী, হাসিবুর ও ইব্রাহিম মোল্যাসহ অজ্ঞাতনামা ১০-১২ জন যুবক বাস থামাতে চালককে সংকেত দেন। চালক বাস থামালে তারা বাসের মধ্যে ঢুকে তাকে টেনে-হেঁচড়ে বাস থেকে নামিয়ে লোহার রড, হকিষ্টিক ও কোদালের আছাড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে সড়কের পাশে ফেলে রেখে যায়। এ সময় তারা পকেটে থাকা টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। 

পরে স্থানীয়রা তাকে রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। 

কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আজাদ হোসেন মৃধা বলেন, ‘আমার কমিটির সাধারণ সম্পাদক শেখ মাসুমের ওপর যে হামলা হয়েছে, তা অত্যন্ত বর্বরোচিত ও ন্যাক্কারজনক। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে।’ 

গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি (তদন্ত) শীতল চন্দ্র পাল জানান, ‘ভিকটিমের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক চলছে ও ঘটনার সাথে জড়িতদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’ 

এবিএন/লিয়াকত হোসেন/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ