আজকের শিরোনাম :

হোসেনপুরে ব্রাহমা জাতের ষাঁড় দেওয়ান বাহাদুর

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০২২, ১১:০৬

রাত জেগে পাহাড়া, পশুর প্রতি সোহাগ ও মায়াবী যতেœ ৪৮ মাস তিলে তিলে বড় করা হয়েছে ব্রাহমা জাতের ষাঁড় দেওয়ান বাহাদুরকে।

কিশোরগঞ্জ জেলাধীন হোসেনপুর উপজেলার জিনারী ইউনিয়নের চরকাটিহারী গ্রামের বড়বাড়ির বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক দেওয়ান বিগত ৪ বছর ধরে দেওয়ান বাহাদুরকে লালন পালন করে আসছেন। ব্রাহমা জাতের বাছুরটি জন্মের পর থেকে রিস্টপুষ্ট থাকায় তাকে দেওয়ান বাড়ির 
নাম অনুসারে তাকে দেওয়ান বাহাদুর নাম রাখা হয়।

কোনো প্রক্রিয়াজাত ছাড়াই পাকা কাঁঠাল, চিড়া, ভূসি, কলা, খেড় ইত্যাদি সাধারণ দেশীয় খাবার বাহাদুরকে দেয়া হয়।

৬ দাঁত বিশিষ্ট দেওয়ান বাহাদুরের  উচ্চতা সাড়ে ৫ ফুট এবং দৈর্ঘ্য ৮ ফুট। তার ওজন দাঁড়িয়েছে ৩৬ মন (১৪৪০ কেজি)। 

দৈনিক দুবার গোসলের পর ফ্যানের বাতাশ দিলেই সে খানিকটা ঘুমিয়ে পড়ে। ষাঁড়টির মালিক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক দেওয়ান জানায়, বর্তমানে গো খাদ্যের মূল্যের বৃদ্ধি পাওয়ায় ষাঁড় লালন পালন খুবই কষ্ট সাধ্য। আশা করছি রুচিশীল ক্রেতারা আমার পালিত ষাঁড়টি ক্রয় করতে আগ্রহ প্রকাশ করবে।

দূর দুরান্ত থেকে ক্রেতারা বাড়িতে এসে ১০ লক্ষ টাকা দাম হাঁকিয়েছেন।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা: মো: আব্দুল মান্নান জানান, কিশোরগঞ্জ জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় ষাঁড় দেওয়ান বাহাদুরকে কোরবানী হাটে বিক্রয়ের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। সম্পূর্ণ দেশীয় খাবারে ষাঁড়টিকে বড় করা হয়েছে। 

এবিএন/মোঃ খায়রুল ইসলাম/জসিম/গালিব

এই বিভাগের আরো সংবাদ