পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বিনামূল্যে সিজারিয়ান সেবা চালু

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩১ জুলাই ২০২২, ১১:৪২

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এই প্রথম বিনামূল্যে সফল সিজারিয়ান অপারেশন সম্পন্ন হয়েছে। 

শনিবার (৩০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় হাসপাতাল কমপ্লেক্সের ওটিতে উপজেলার সৈয়দগাঁও গ্রামের কাশেম মিয়ার স্ত্রী মিম (২০) নামের এক প্রসূতির সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। 

এ অপারেশন সম্পন্ন করেন জুনিয়র কনসালটেন্ট ও গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাঃ শাহ মোঃ হাসানুর রহমান। দীর্ঘ দিন পরে পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সিজারিয়ান অপারেশন চালু হওয়ায় খুশি চিকিৎসক, নার্সসহ উপজেলার সাধারণ নি¤œ আয়ের মানুষ। 

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালে উন্নত যন্ত্রপাতি দিয়ে আধুনিক অপারেশন থিয়েটার স্থাপন করা হলেও সার্জন, এ্যানেসথেসিস্ট ও আধুনিক জেনারেটর না থাকায় পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ অপারেশন থিয়েটার চালু করা যায়নি। দীর্ঘ ১১ বছর পর চলতি বছরের ২৫ জুন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অপারেশন থিয়েটারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন কিশোরগঞ্জ-২ (পাকুন্দিয়া-কটিয়াদি) আসনের সংসদ সদস্য নূর মোহাম্মদ। এরপর আজ শনিবার সকালে এই প্রথম সিজারিয়ান অপারেশন কার্যক্রম শুরু হয়। 

সিজারিয়ান অপারেশনে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নূর-এ- আলম খানের নেতৃত্বে জুনিয়র কনসালটেন্ট ও গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাঃ শাহ মোঃ হাসানুর রহমান, এনেস্থেসিওলজিস্ট ডাঃ ফারজানা জামান পুনম, ডাঃ সুমাইয়া রহমান, ওটি ইনচার্জ সিনিয়র স্টাফ নার্স সেলিনা বেবি অংশগ্রহণ করেন।   

প্রসূতির স্বামী কাশেম মিয়া বলেন, স্ত্রীর প্রসব বেদনা উঠলে গত ২৯ জুলাই রাতে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করি এবং জানতে পারি এখানে বিনামূল্যে সিজারিয়ান অপারেশন করা হয়। অপারেশনের পর মা মেয়ে দুজনেই সুস্থ আছেন। উপজেলা পর্যায়ে অপারেশন চালু হওয়ায় আমাদের মতো সাধারণ মানুষেরা উপকৃত হবে। 

পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নূর-এ-আলম খান বলেন, পাকুন্দিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এই প্রথম সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে এক প্রসূতি কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। এখন থেকে বিনামূল্যে উপজেলাবাসী হাতের নাগালেই সিজারিয়ান ও সার্জিকেল সেবা পাবে।

এবিএন/শরীফ আহম্মেদ/জসিম/গালিব 

এই বিভাগের আরো সংবাদ