রাজবাড়ীতে দোকানঘর-উদ্ধার করতে ভাইবোনের অবস্থান

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ আগস্ট ২০২২, ১০:২৮

রাজবাড়ী বাজারের ঐতিবাহী আলম স্টোর-দোকানঘর জবর দখলের চেষ্টার অভিযোগে সদর থানায় লিখিত দেওয়ায দোকান মালিককে মৃত্যুর হুমকী দিচ্ছেন পতিপক্ষরা অভিযোগ ভুক্তভোগীর।

শহরের পাচঁতলা মোড়ে ১৯৬২ সালে স্থাপিত আধুনিক রেডিমেট পোশাকের দোকান আলম স্টোর।এই দোকানটি পরিচালনা করতে ততকালীন সময়ে মৃত খোরশেদ আলম। তার মৃত্যুর পরে দুই পুত্র জাহিদুল আলম ও রাসেদুল আলম ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতেন।

এক সময় রাসেদুল আলম ঢাকায় চলে যান। সে সুবাধে জাহিদুল আলম একাই দোকন পরিচালনা করতো।কিন্তু হঠাত করে জাহিদুল আলম অন্য ভাই বোনদের না জানিয়ে গোপনে দোকানঘর অন্য এক পক্ষের কাছে ভাড়া দিয়েছেন। রাসেদুল আলম ও তার অন্য ভাই বোনেরা বিষটি জানার পরে দোকান ঘরে গত ০৩-০৮-২০২২ ইং তারিখে তালা ঝুলিয়ে দেন। এর পরে তার মেঝ ভাই জাহিদুল আলম ও তার সহযোগী কয়েকজন রাসেদুল আলমকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে তালা ভেঙ্গে দোকান জবর দখল করেন।

সর্ব শেষ আজ ০৭ আগস্ট রবিবার বেলা ১২টায় রাসেদুল আলমসহ ৫ভাই বোন দোকান ঘরের সামনে অবস্থান নেন। পরে পূণরায় দোকান ঘরে তালা মেরে ও ওয়েলডিং করে আটকিয়ে দিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে সদর থানায় একাধিক  লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগ কারি রাশিদুল আলম কে ১ জন পৌর কাউন্সিলর সহ কয়েকজন ভয় ভিতি দেখাচ্ছে বলে অভিযোগ রাশেদুল আলমের।

বেস কয়েক দিন যাবত শহরের মধ্যে এই দোকানঘর নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।যে কোন মুহুর্তে বড় ধরনো ঘটনা ঘটার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। 

রাশেদুল আলম  থানায় লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন, আমাদের পৈত্রিক ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান আলম ষ্টোর, ০৩/০৮/২০২২ ইং তারিখ আনুমানিক সন্ধা ০৭.৩০ মিনিটে আমি দোকানে যাওয়ার পর মঞ্জু এবং সালাউদ্দিন সহ আরও কয়েকজন মিলে আমাদের দোকান থেকে আমাকে জোর পূর্বক তারিয়ে দেয়
ও আমাকে গালিগালাজ করে এবং হত্যার হুমকি দেয়। আমি প্রাণনাশের আশঙ্কায় আছি। 

বিষয়ে রাজবাড়ী সদর থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদত হোসেন জানান, বাজারের মধ্যে একটি দোকান ঘর নিয়ে পারিবারিক ল ঝামেলা চলছে। এবিষে এক পক্ষ একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এবিএন/খন্দকার রবিউল ইসলাম/জসিম/গালিব

এই বিভাগের আরো সংবাদ