আজকের শিরোনাম :

তালায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে নম্বর জালিয়াতির অভিযোগ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ আগস্ট ২০২২, ১০:৪৮

তালার শহীদ আলী আহম্মদ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকের বিরুদ্ধে পরীক্ষার নম্বর জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে। আর এই জালিয়াতির অভিযোগ করেছে বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক। 

সম্প্রতি বিদ্যালয়টির ৮ম শ্রেণির অর্ধবার্ষিক পরীক্ষায় সিনিয়র শিক্ষক মুমতাহিনা মুক্তি কর্তৃক পরীক্ষার নম্বর জালিয়াতির অভিযোগ করে ৭ আগস্ট রবিবার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি অভিযোগ প্রদান করে ভুক্তভূগি শিক্ষার্থীর অভিভাবক। 

অভিযোগকারী মো. রেজাউল ইসলাম রেজা জানান, আমার মেয়ে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। অর্ধবার্ষিক পরীক্ষায় পরীক্ষার নম্বর জালিয়াতি মাধ্যমে আমার মেয়ে কে মেধা তালিকা  থেকে নিচে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্ত অন্য একটা মেয়েকে আইসিটি খাতার নম্বর জালিয়াতি করে ৪০ মার্কস দেওয়া হয়েছে। কিন্ত আইসিটি মূল্যায়নকারী শিক্ষক মালফতে জানতে পারলাম ওই মেয়েটা ৩৪ থেকে ৩৬ এই ভেতর নম্বর পেয়েছে। আমি মনে করি ঐ শিক্ষক অনেক টাকার বিনিময়ে এই নম্বর জালিয়াতি করেছেন। এভাবে চলতে থাকলে বিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হবে। আমি এর প্রতিকার চাই।

এ বিষয়ের মুমতাহিনা মুক্তি বলেন, যা কিছু করেছি তা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের অনুমতি নিয়েই করেছি। 

আইসিটি বিষয়ের শিক্ষক মো. আসলাম আল মেহেদী বলেন, আমি আইসিটি বিষয়ের শিক্ষক। আমি খাতা মূল্যায়ন করে একজন শিক্ষার্থীকে ৩৬ নম্বর দিয়েছি। কিন্তু ইংরেজি বিভাগের একজন শিক্ষক এসে কিভাবে আমার মূল্যায়নকৃত নম্বর কেটে নম্বর বাড়িয়ে দেয় তার আমার জানা নেই। এতে আমি অপমানিত হয়েছি। 

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অলোক কুমার তরফদার বলেন, আমি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি দেখবো। তারপর ব্যবস্থা নিবো। 

তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বিশ^াস জানান, আমি অভিযোগ পেয়েছি। যেহেতু সরকারি প্রতিষ্ঠান সেহেতু সরকারি নিয়ম অনুযায়ী বিষয়টি দেখা হবে।

এবিএন/সেলিম হায়দার/জসিম/গালিব

এই বিভাগের আরো সংবাদ