উলিপুরে প্রকাশ্যে ওষুধ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ আগস্ট ২০২২, ১৪:০৫

কুড়িগ্রামের উলিপুরে ঔষধ ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেনকে প্রকাশ্য দিবালোকে চাপাতী দিয়ে উপর্যপুরী কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে এক দুর্বৃত্ব। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৬ আগষ্ট বিকেল সাড়ে পাঁচটায় উলিপুর থানা মোড় এলাকায়। 

এ ঘটনায় জড়িত আসামীকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে বনিক সমিতি নেতৃবৃন্দ। অন্যথায় বৃহতর কর্মসুচীর ঘোষনা দিয়েছে। এঘটনায় ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।  
 
এজাহার সূত্রে জানা যায়, হেলথ কেয়ার ফার্মেসির মালিক আলমগীর হোসেন ওই সময় পার্শ¦বর্তী গিনি ফার্মেসিতে ঔষধ নিতে গেলে মোঃ মাসুদ ওরফে মাসুদ রানা (৩৫) পিচন থেকে চাপাতী দিয়ে এলোপাতারী ৫টি কোপ দিয়ে বীরদর্পে পালিয়ে যায়। 

প্রত্যক্ষদর্শী, গিনি ফার্মেসির কর্মচারী দ্বীপক চন্দ্র জানায়, আমাদের দোকানের সামনে আলমগীর এসে দাঁড়ানোর পরেই ঔই যুবক তার উপর চাপাতি দিয়ে কোপাতে থাকে। পরে তাকে আহত অবস্থায় উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্ত্তি করা হয়। তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে প্রেরন করেন। সন্ত্রাসী মাসুদ রানা হায়াত খা কুড়ার পাড় গ্রামের আসাদ আলীর পুত্র।  
 
উলিপুর বনিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মাইনুল ইসলাম মন্ডল জানান, উলিপুরে এমন প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী ঘটনা আগে কখন ও ঘটেনি। আমরা আসামি গ্রেপ্তারে ২৪ ঘন্টা সময় দিয়েছি। পুলিশ আসামি গ্রেপ্তারে ব্যর্থ হলে হরতালসহ বহৃত্তর কর্মসূচী দেয়া হবে।

এ ব্যাপারে আলমগীরের স্ত্রী ফারজানা বেগম বাদী হয়ে উলিপুর থানায় মাসুদ রানাসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩ জনের নামে থানায় মামলা দায়ের করেছে। মামলা নং ৭ তারিখ ০৭/০৮/২২।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সুভাষ চন্দ্র সরকার বলেন, আলমগীরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। 

উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইমতিয়াজ কবির মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামি গ্রেপ্তারে জোড় চেষ্টা চলছে।

এবিএন/আব্দুল মালেক/জসিম/গালিব

এই বিভাগের আরো সংবাদ