ছুটির দিনে বাণিজ্য মেলায় উপচেপড়া ভিড়

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:৫৭

কয়েকদিন ধরে দেশে করোনার সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। এ অবস্থায় জনসমাগম বন্ধসহ বেশকিছু বিধিনিষেধ দিয়েছে সরকার। বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও। এর মধ্যেই পূর্বাচলের বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে চলছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর। মেলার ২১তম দিনে শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। বিক্রেতারা বলছেন, মেলা শুরু হওয়ার পর থেকে আজই সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা যাচ্ছে।

কারণ হিসেবে ক্রেতা-বিক্রেতা এবং দর্শনার্থীরা বলছেন, মেলা শেষ হওয়ার সময় যত এগিয়ে আসছে তাই ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের ভিড় বাড়ছে। তাছাড়া আজ ছুটির দিন হওয়ায় অনেকে মেলায় আসতে দিনটি বেছে নিয়েছেন।

শুক্রবার মেলা প্রাঙ্গণে সরেজমিনে দেখা গেছে, জুমার নামাজের পর থেকেই কুড়িলে মেলাগামী বিআরটিসি বাসের টিকিটের জন্য মানুষজনের লম্বা সারি। বাস থেকে নেমে মেলা প্রাঙ্গণে পৌঁছাতেই দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের আরও কয়েকগুণ ভিড় দেখা যায়।

মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশ করে দেখা যায়, দল বেঁধে দর্শনার্থীরা প্রবেশ টিকিট কেটে আসছেন। মেলায় দর্শনার্থীদের এমন আগমনে বিক্রেতাদের মুখে উচ্ছ্বাসের হাসি। মেলায় আসা ক্রেতারা বিভিন্ন স্টল ঘুরে ঘুরে চাহিদা মতো নিজের কাঙ্ক্ষিত পণ্যটি কেনার চেষ্টা করছেন। আবার অনেকে কেনাকাটা শেষ করে স্টলে বাইরে বসে বিশ্রাম নিচ্ছেন। মেলায় আসা ক্রেতা-দর্শনার্থীদের কেউ কেউ মাস্ক পরলেও অনেককেই মাস্কবিহীন ঘুরে বেড়াতে দেখা গেছে। বিক্রেতাদের কারও কারও মুখেও ছিল না মাস্ক।

অন্যদিকে মেলায় দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় দেখে খুশি বিক্রেতারা। মেলার শেষ সময়ে ক্রেতাদের এমনই ভিড় প্রত্যাশা করছিলেন তারা। এদিকে মেলায় আসা ক্রেতাদের সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা গেছে কাপড়, প্রসাধনী ও ক্রোকারিজ পণ্যের স্টলগুলোতে।

প্রবেশমূল্য ও সময় : মেলা সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলে। তবে ছুটির দিনে মেলা সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকে। এবার প্রবেশমূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ৪০ টাকা এবং অপ্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ২০ টাকা। তবে কেউ যদি বিকাশে টিকিট নেন, তাদের জন্য ৫০ শতাংশ ছাড় রয়েছে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ