টিকা না নিলে এবার ফরাসি ওপেনেও অনিশ্চিত জকোভিচ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১১:০০

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলা হয়নি নোভাক জকোভিচের। অস্ট্রেলিয়া ছেড়ে জকোভিচ পৌঁছেছেন দুবাই। তবে জকোভিচের কেরিয়ারে জটিলতা আরও বাড়তে চলেছে। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের পর হয়তো ফরাসি ওপেনের দরজাও বন্ধ হয়ে যেতে চলেছে তাঁর জন্য। ফ্রান্সের ক্রীড়ামন্ত্রণালয়ের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, করোনার ভ্যাকসিন না নিলে ফরাসি ওপেনে অংশ নিতে পারবেন না সার্বিয়ান তারকা।

গতকাল সোমবারই (১৭ জানুয়ারি) ফ্রান্সের ক্রীড়ামন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়, টিকা সংক্রান্ত একটি আইন পাশ করেছে ফ্রান্স। যেখানে বলা হয়েছে, রেস্তরাঁ, কাফে, সিনেমা হল, দূরপাল্লার ট্রেনের মতো জনবহুল জায়গায় প্রবেশের জন্য টিকাকরণের সার্টিফিকেট আবশ্যক। দর্শক থেকে ক্রীড়াবিদ, সকলের জন্যই একই নিয়ম প্রযোজ্য। সমস্যা হল জকোভিচ এখনও করোনার ভ্যাকসিন নেননি। তিনি নিতে ইচ্ছুক নন। 

অবশ্য ফরাসি ওপেনের আসর বসবে মে মাসে। ততদিনে পরিস্থিতি বদলাতে পারে। ফ্রান্সে তখন কী নির্দেশিকা জারি থাকবে, তার উপরই নির্ভর করবে এই গ্র্যান্ড স্লামে জকোভিচের খেলার ভবিষ্যৎ। তবে ফরাসি সরকার সোমবার স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়ে রাখল যে সংক্রমণ ঠেকাতে তারা টিকাকরণেই জোর দিচ্ছে। 

এটা ঘটনা জকোভিচের টিকাকরণ না হওয়া সত্ত্বেও অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কর্তৃপক্ষের তরফে বিশেষ ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছিল তাকে। কিন্তু সেখানে তাকে আটকে দেওয়া হয়। প্রশাসনের তরফে জানানো হয়, সার্বিয়ার তারকার ভিসার আবেদনপত্রে ভুল থাকায় তাকে বিমানবন্দর থেকে বেরোনোর অনুমতি দেওয়া হয়নি। ঘটনার জল গড়ায় আদালত পর্যন্ত। দু’বার বাতিল করে দেওয়া হয় জকোভিচের ভিসা। যার জেরে তাকে রাত কাটাতে হয় ডিটেনশন সেন্টারেও। শেষমেশ আইনি লড়াইয়ে হেরে অস্ট্রেলিয়া ছাড়তে হয় তাকে। এবার টিকা না নেওয়ার জেরে অনিশ্চিত হয়ে পড়ল ফরাসি ওপেনে তার অংশগ্রহণও।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ